একজন বলছেন বউ নিয়ে যান, আরেকজন বউ ফেরতের দাবিতে ধর্ণায় বসেছেন !

News18 Bangla
Updated:Jul 12, 2019 08:35 PM IST
একজন বলছেন বউ নিয়ে যান, আরেকজন বউ ফেরতের দাবিতে ধর্ণায় বসেছেন !
News18 Bangla
Updated:Jul 12, 2019 08:35 PM IST

#বর্ধমান: একজন বলছেন বউ নিয়ে যান। তাঁর বউ লাগবে না। আরেকজন বলছেন, বউ ফেরত দিন। বউ ফেরতের দাবিতে ধর্ণায় বসেছেন তিনি। দু'জনেই বর। একটি ঘটনা পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের। আরেকটি মেদিনীপুর শহরের কোতয়ালির।

আউশগ্রামের বাসিন্দা মনোজ টুডু। তাঁর অভিযোগ, অনেকদিন ধরে এলাকারই বাসিন্দা জয়দীপ পালের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক আছে স্ত্রীয়ের। বৃহস্পতিবার স্ত্রীকে জয়দীপের সঙ্গে বাড়িতেই আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পান।

এতদিন সন্দেহ ছিল। এবার হাতেনাতে পাকড়াও। খেপে লাল মনোজ। যাঁকে বিশ্বাস করে সংসার বেঁধেছিলেন, তাঁকেই বাঁধেন দড়ি দিয়ে। আর ওই দড়িরই আরেকদিকে অভিযুক্ত জয়দীপ। বেঁধে বসিয়ে রাখেন দু'জনকে। ডেকে আনেন পড়শিদের। ঘোষণা করেন, এই বউ লাগবে না। বরং তাঁর বউ সংসার পাতুক ওই জয়দীপের সঙ্গেই। সঙ্গে তিন সন্তানের দায়িত্বও ছেড়ে দিতে চান মনোজ।

আউশগ্রামের বর যখন বলছেন, বউ লাগবে না। তখনই আরেক বর বলছেন বউ ফেরত দাও। বউ ফেরত চেয়ে শ্বশুরবাড়ির সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে বসে পড়েছেন তিনি। মেদিনীপুরের তোলাপাড়া বউ ফেরতের দাবিতে তোলপাড়। বরের নাম রাজা। প্রথমে শ্বশুরবাড়ির সামনে বউ ফেরতের দাবিতে ধর্ণা। পরে থানার সামনে ধর্ণায় বসেন রাজা।

পরে এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা দেওয়ার শর্তে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান আউশগ্রামের জয়দীপ পাল। এক বর প্রেমে ধাক্কা খেয়ে কঠিন। আরেক বর প্রেম চেয়ে নরম। এঁদের বউরা কী বলছেন, তা অবশ্য নীরবেই থেকেছে।

First published: 08:35:19 PM Jul 12, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर