১৫ কেজি ওজনের প্যাঙ্গলিন পাচার করতে গিয়ে শাসন থেকে ধৃত ১

১৫ কেজি ওজনের প্যাঙ্গলিন পাচার করতে গিয়ে শাসন থেকে ধৃত ১
ছবি: সংগৃহীত ৷

আন্তর্জাতিক বাজারে প্যাঙ্গলিনের আঁশ ও মাংসের প্রচুর চাহিদা। আঁশ দিয়ে ওষুধ ও জ্যাকেট তৈরি হয়।

  • Share this:

#শাসন: আন্তর্জাতিক প্যাঙ্গলিন পাচার চক্রের এক পান্ডা গ্রেফতার। উদ্ধার একটি ১৫ কেজি ওজনের প্যাঙ্গলিন। ধৃতের নাম শরিফুল ইসলাম (৪৫)। শাসনের বারো মল্লিকা এলাকায় তার বাড়ি। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় এই প্যাঙ্গলিনটি।

ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরো ও ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কট্রোল সেল-এর কাছে বেশ কিছুদিন খবর ছিল এই ব্যক্তি তক্ষক ও প্যাঙ্গলিন পাচার করছে। সেই মতো তাঁরা ওই ব্যাক্তিকে নজরে রাখছিলেন। তাঁদের কাছে সূত্র মারফত একটি খবর আসে যে ইউপি থেকে শরিফুল একটি প্যাঙ্গলিন নিয়ে এসেছে এবং সেটি বিক্রি করার জন্য বিভিন্ন লোকের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। সেই মতো আজ দুপুরে শরিফুলের শাসনের বাড়িতে হানা দেয় বনদফতর। সেখান থেকে একটি প্যাঙ্গলিন উদ্ধার হয়। হাতে নাতে ধরা পড়ে যায় শরিফুল ইসলাম।

কেন প্যাঙ্গলিনের এত চাহিদা? কেন বিক্রি হচ্ছে এই প্রাণীটি? বন দফতর সূত্রের খবর, এই প্রাণী গুলি মধ্য ভারত ও পশ্চিম ভারতের রাজ্যে পাওয়া যায়। সেখান থেকে অসাধু ব্যবসায়ীরা ধরে তাদের বিক্রি করে বিপুল অর্থের বিনিময়ে।

আন্তর্জাতিক বাজারে প্যাঙ্গলিনের আঁশ ও মাংসের প্রচুর চাহিদা। আঁশ দিয়ে ওষুধ ও জ্যাকেট তৈরি হয়। আর এর মাংস সাউথ ইস্ট এশীয় দেশ গুলোতে খুব জনপ্রিয়।

এই সব কারণের জন্য প্যাঙ্গলিন আন্তর্জাতিক বাজারে পাচার হয়ে যাচ্ছে। আগামীকাল ধৃতকে বারাসত কোর্টে তোলা হবে। এই পাচারচক্রে আর কারা কারা জড়িত আছে সেই বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

First published: January 21, 2020, 10:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर