corona virus btn
corona virus btn
Loading

অনাহারে-অর্ধাহারে কাটছে দিন, পেট চালাতে পুলিশ ছেলের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ বৃদ্ধ মা-বাবা

অনাহারে-অর্ধাহারে কাটছে দিন, পেট চালাতে পুলিশ ছেলের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ বৃদ্ধ মা-বাবা

১৩ বছর আগে ছেলের সঙ্গে মা-বাবার সম্পর্ক ছিন্ন হয় । ছেলে মিঠুন দত্ত বর্তমানে বিধাননগর কমিশনারেটের পুলিশে কনস্টেবল পদে কর্মরত । কিন্তু লকডাউনে রোজগার বন্ধ থাকায় খেতে পাচ্ছেন না বাবা-মা ।

  • Share this:

#দুবরাজপুর: লক ডাউনে সংসার চালাতে পিঠ ঠিকেছে বৃদ্ধ প্রতিবন্ধী বাবা ও মায়ের । খোরপোষ চেয়ে পুলিশ কনস্টেবল ছেলের বিরুদ্ধে দারস্থ হলেন আদালতের । বীরভূমের দুবরাজপুরের ঘটনা ।

দুবরাজপুরের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা বৃদ্ধ উত্তম দত্ত ও তাঁর স্ত্রী সোনালী দত্ত । ছেলে পুলিশে চাকরি পাওয়ার পর আনন্দ করে পাড়ার সবাইকে মিষ্টি খাইয়েছিলেন  । কিন্তু ১৩ বছর আগে ছেলের সঙ্গে মা-বাবার সম্পর্ক ছিন্ন হয় । ছেলে মিঠুন দত্ত বর্তমানে বিধাননগর কমিশনারেটের পুলিশে কনস্টেবল পদে কর্মরত । বউ ও এক কন্যা নিয়ে সুখের দিন কাটছে তাঁর ৷ বৃদ্ধ দম্পতির অভিযোগ , ১৩ বছর আগে শেষ কথা হয়েছিল ছেলের সঙ্গে । তারপর থেকে আর কোনও  সম্পর্কই রাখেনি ছেলে ।

প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ উত্তম দত্ত দুবরাজপুর বাসস্ট্যান্ডে টাইম কিপারের অফিসে বসে থাকেন ,  দয়া করে কেউ সাহায্য করলে তাতেই দিন কাটে । ওই টাকা দিয়েই সংসার চলে । অভিযোগ লকডাউন চলাকালীন বাস বন্ধ । লক ডাউন শিথিল হয়ে বাস চলাচল শুরু হলে সব রুটের বাস চলছে না । তাই রোজগার একদম বন্ধ । একবেলা খেতে পান তো আরেক বেলা খাবার থাকে না ঘরে । দম্পতির কাছে ছেলের মোবাইল নম্বরও নেই ।

লকডাউন চলাকালীন একবার টাকা চেয়েছিলেন ছেলেরা এক বন্ধুর মোবাইল থেকে ফোন করে । কিন্তু ওপ্রান্ত থেকে কোনও সাড়া আসেনি । তাই বাধ্য হয়ে আইন আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা । তাঁদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মহিলা আইনজীবী । তিনি কোনও অর্থ না নিয়েই এই আইনি লড়াই লড়ছেন । জানা গিয়েছে দুবরাজপুর আদালত থেকে নোটিশ যাবে পুলিশ ছেলের কাছে । ২১ জুলাই মামলায় হাজিরা দিতে হবে পুলিশ ছেলেকে । সেদিন এলে অন্তত বৃদ্ধ মা-বাবা চোখের দেখা দেখতে পাবেন ছেলেকে ।

Supratim Das

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 11, 2020, 7:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर