Home /News /south-bengal /
Kushmandi Face Mask: অনলাইনে মিলবে কুশমণ্ডির মুখোশ! অভিনব আয়োজন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের

Kushmandi Face Mask: অনলাইনে মিলবে কুশমণ্ডির মুখোশ! অভিনব আয়োজন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Kushmandi Face Mask: আগামী দিনে গোটা বিশ্ব জুড়ে মুখোশের মার্কেটিং করে জেলায় নতুন দিগন্ত খুলবে আশাবাদী জেলা প্রশাসন।

  • Share this:

    #কুশমণ্ডি: কুশমণ্ডির মুখোশ এবারে পাওয়া যাবে অনলাইনে। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের ওয়েবসাইট থেকেই বিক্রি শুরু করল জেলা প্রশাসন। কুশমণ্ডির মুখোশের সুনাম ছড়িয়েছে দেশ ছেড়ে বিদেশের মাটিতেও, কিন্তু সে ভাবে মুখোশের বিক্রির প্রসার ঘটাতে পারেনি কুশমণ্ডি-মহিষবাথান মুখোশ হস্তশিল্পী সমবায় সমিতি। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে বিভিন্ন জেলায় কুশমণ্ডির মুখোশ হস্তশিল্পীদের মুখোশ বিক্রি করার সুযোগ মেলে মেলাতে। গত দুবছর করোনা পরিস্থিতে কুশমণ্ডির ঐতিবাহী কাঠের মুখোশ শিল্পীদের করুণ অবস্থা হয়। কাজ হারিয়ে অন্য পেশার সাথে যুক্ত হয়ে পড়েন শিল্পীরা।

    মুখোশের সুনাম ছড়িয়ে পড়লেও কর্পোরেট জগতের সঙ্গে মার্কেটিংয়ের সমস্যার কারণে এখনও সেভাবে প্রসার লাভ করতে পারেনি। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা শাসক আয়েশা রানি সম্প্রতি কুশমণ্ডি মহিষবাথান মুখোশ সমবায় সমিতিতে পরিদর্শন করেন। হস্তশিল্পীদের সুবিধা অসুবিধা নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন। জেলাশাসকের উদ্যোগে এ বারে জেলা পরিষদের ওয়েব সাইট থেকে মিলবে অনলাইনে কুশমণ্ডি মহিষবাথান হস্তশিল্পীদের তৈরী বিভিন্ন ডিজাইনের মুখোশ।

    আরও পড়ুন: বাইপাসের ধারে অস্থায়ী পার্টি অফিস হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের

    সম্প্রতি বালুরঘাটে রাজ্যের মন্ত্রী বিপ্লব মিত্রের হাত দিয়ে সবলা সৃষ্টিশ্রী মেলা থেকে ওয়েব সাইটের উদ্বোধন হয় বৃহস্পতিবার। আগামী দিনে গোটা বিশ্ব জুড়ে মুখোশের মার্কেটিং করে জেলায় নতুন দিগন্ত খুলবে আশাবাদী জেলা প্রশাসন।

    আরও পড়ুন: বগটুই কাণ্ডের মাঝেই প্রবল বিপদে অনুব্রত মণ্ডল, হাইকোর্টে বড় ধাক্কা! কী ঘটল?

    জেলাশাসক আয়েশা রানি এ বলেন, আমি সম্প্রতি কুশমণ্ডি মহিষবাথান সমবায় সমিতি পরিদর্শন করি সেখানে অনেক শিল্পী সমবায়ে বসে কাঠের মুখোশ তৈরী করছে খুব সুন্দর সুন্দর। কাঠের মুখোশ গৃহসজ্জা ও কোনও দফতরকে আকর্ষণীয় করে তুলতে পারে। শিল্পীদের কাছে তাদের সমস্যার কথা শুনি। সমবায় জানায় প্রায় হাজার শিল্পী মুখোশ তৈরীর সঙ্গে সরাসরি ভাবে যুক্ত রয়েছে। সমবায়ের অর্ডার অনুযায়ী মুখোশ তৈরী করে পারিশ্রমিক নেন শিল্পীরা। অনলাইনের যুগে সমবায় এখনও পর্যন্ত অনলাইনে মার্কেটিং করে উঠতে পারেনি। আমি বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করি জেলায় আমাদের জেলা পরিষদের ওয়েবসাইটকে কাজে লাগিয়ে মুখোশের মডেল দিয়ে অনলাইনে বিক্রির ব্যবস্থা করেছি। সঙ্গে জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটিং কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে তাদের মাধ্যমেও জেলার মুখোশ বিশ্বের বাজারে অনলাইনে মার্কেটিং করতে শুরু করবে।

    অরূপ সান্যাল

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Districts

    পরবর্তী খবর