স্বাস্থ্যবিধি শিকেয়, সংক্রমণের আশংকায় বর্ধমান স্টেশন এড়িয়ে চলছেন অনেকেই

স্বাস্থ্যবিধি শিকেয়, সংক্রমণের আশংকায় বর্ধমান স্টেশন এড়িয়ে চলছেন অনেকেই
বর্ধমান স্টেশনের ফুট ওভার ব্রিজে ওঠার সিঁড়িতে গা ঘেঁষাঘেঁষি করা ভিড়। সেখানে বজায় থাকছে না সামাজিক দূরত্ব

বর্ধমান স্টেশনের ফুট ওভার ব্রিজে ওঠার সিঁড়িতে গা ঘেঁষাঘেঁষি করা ভিড়। সেখানে বজায় থাকছে না সামাজিক দূরত্ব

  • Share this:

#বর্ধমান: স্টেশনে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। ফলে পদে পদে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আশংকা। সেই ভয়ে রেলপথ এড়িয়ে চলছেন অনেকেই। ট্রেন চলাচল শুরু হতেই ফিরে এসেছে বর্ধমান স্টেশনের ভিড়ে ঠাসাঠাসির পরিচিত দৃশ্য। বর্ধমান স্টেশনের ফুট ওভার ব্রিজে ওঠার সিঁড়িতে গা ঘেঁষাঘেঁষি করা ভিড়। সেখানে বজায় থাকছে না সামাজিক দূরত্ব। তার ফলেই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশংকা অনেকেরই।

প্রায় সাড়ে সাত মাস বন্ধ থাকার পর বুধবার থেকে শুরু হয়েছে লোকাল ট্রেন চলাচল। হাওড়া বর্ধমান কর্ড ও মেন শাখায় লোকাল ট্রেন চলাচল করলেও সেভাবে যাত্রীদের দেখা নেই। বুধবারের তুলনায় বৃহস্পতিবার ভিড় ছিল কম। শুক্রবারও প্ল্যাটফর্ম ফাঁকাই ছিল। তাতেও ফুট ওভার ব্রিজে ওঠার সময় আঁতকে ওঠার মতো ভিড় দেখা যাচ্ছে। অনেকেই বলছেন, এখনই এমন ভিড় হলে দীপাবলির পর পুরোদমে অফিস শুরু হলে সেই কথা ভেবে চিন্তা বাড়ছে।

এমনিতে করোনার সংক্রমণ যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে তা নিশ্চিত করতে নানান সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ট্রেনের মধ্যে বসার আসনে রাখা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব। যাত্রীদের মুখে মাস্ক লাগানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রীনিং হচ্ছে। স্টেশনে রয়েছে আইসোলেশন রুম। কিন্তু যাত্রীদের অনেকেই সচেতন নন। অনেকেই ট্রেনে উঠে মাস্ক খুলে ফেলছেন। বসে পড়ছেন মাঝের আসনে। গেটের মুখে দাঁড়াচ্ছেন গা ঘেঁষাঘেঁষি করে। একসঙ্গে সবাই হুড়মুড়িয়ে ফুট ওভার ব্রিজে উঠতে চাইছেন। সামান্য সময় অপেক্ষা করে ভিড় এড়িয়ে চলার ধৈর্য্য দেখাচ্ছেন না অধিকাংশ যাত্রীই।


এসব কারণে সচেতন যাত্রীদের অনেকেই এখন রেলপথ এড়িয়ে চলছেন। খুব প্রয়োজন ছাড়া এখনই ট্রেনে ভ্রমণে লাগাম টেনে রাখছেন অনেকেই। আপাতত এই ভিড়ে ঠাসাঠাসির পরিনাম কি হয় তা দেখে নিতে চাইছেন তাঁরা।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: