রাজ্যের অনুমতি ছাড়া বদলানো যাবে না বর্ধমান স্টেশনের নাম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে জানাল রেলমন্ত্রক

রাজ্যের অনুমতি ছাড়া বদলানো যাবে না বর্ধমান স্টেশনের নাম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে জানাল রেলমন্ত্রক

বর্ধমান স্টেশনের নাম বদল ইস্যু এবার নিল নয়া মোড় ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বর্ধমান স্টেশনের নাম বদল ইস্যু এবার নিল নয়া মোড় ৷ রাজ্যের অনুমতি ছাড়া কোনভাবেই বদলানো যাবে না স্টেশনের নাম ৷ একথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে জানিয়েছে রেলমন্ত্রক ৷ এর আগে বর্ধমান স্টেশনের নাম বদলে বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্তের নামে রাখার কথা ঘোষণা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ৷ বটুকেশ্বর দত্তের বাড়িতে দাঁড়িয়ে অমিত শাহের এহেন ঘোষণা নিয়ে তৈরি হয় বিতর্ক ৷

ভগত সিংয়ের সহযোগী বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্তকে সম্মান জানাতে বর্ধমান স্টেশনের নাম বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। যা নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে এই জেলায়। বর্ধমান স্টেশনের নাম বদল নিয়ে রেলের সিদ্ধান্তে কার্যত দু’ভাগ বর্ধমান। জৈন ধর্মাবলম্বীদের মতে মহাবীর বর্ধমানের নামেই এই স্টেশনের নাম। তাই এই নাম বদল হলে, আদালতে যাবেন বলেও হুমকি দেন জৈন ধর্মাবলম্বীরা। বটুকেশ্বর দত্ত স্মতি রক্ষা কমিটি অবশ্য চাইছে স্বাধীনতা সংগ্রামীকে সম্মান জানিয়ে অবিলম্বে নাম বদল করুক সরকার। নতুন নামকরণ নিয়ে উঠছে পক্ষে-বিপক্ষে নানা যুক্তি।

4ad708b1-9cf3-4e49-a8bd-756fff7221a4

জৈন ধর্মাবলম্বীদের মতে, তীর্থঙ্কর মহাবীর বর্ধমান এই এলাকায় তপস্যা করেছিলেন ৷ সেই থেকেই এই জনপদের নাম বর্ধমান ৷ তাই বর্ধমান স্টেশনের নাম পরিবর্তন কোনও ভাবেই সমর্থন করছেন না জৈন ধর্মাবলম্বীরা।  বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্ত পূর্ব বর্ধমানের খন্ডঘোষের ওঁয়ারি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাই বর্ধমান স্টেশনের নাম না পরিবর্তন করে, এই পথের অন্য কোনও স্টেশনের নাম পরিবর্তনের পক্ষে সওয়াল করছেন তাঁরা।

বর্ধমানের বদলে রায়না বা খন্ডঘোষ স্টেশনের নাম বটুকেশ্বর দত্তের নামে করার দাবি জানাচ্ছেন স্থানীয়রা। দীর্ঘদিনের আন্দোলনের ফলেই আজ প্রাপ্য সম্মান পাচ্ছেন স্মৃতির অদলে হারিয়ে যাওয়া স্বাধীনতা সংগ্রামী বটুকেশ্বর দত্ত। মত বটুকেশ্বর দত্ত স্মৃতি সংরক্ষণ কমিটির।

ঐতিহাসিকরা অবশ্য বলছেন এই নাম বদল নিতান্তই প্রতীকী। এর সঙ্গে বর্ধমান স্টেশনের ঐতিহ্য হারিয়ে যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। বটুকেশ্বর দত্তকে সম্মান জানিয়েও নিজেদের ইতিহাসকে মুছে দিতে নারাজ জৈন ধর্মালম্বীরা। কেন্দ্র নাম বদল করলে আদালতে যাওয়ার চিন্তা ভাবনাও করছেন তাঁরা।

First published: July 30, 2019, 2:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर