• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • LAXMI RATAN SHUKLA KEEPS PEOPLE GUESSING FOR REASON OF HIS RETIREMENT FROM POLITICS DMG

'সব কথা না বলাই ভাল', মুখ খুলেও রহস্যই রাখলেন লক্ষ্মী

লক্ষ্মীরতন শুক্ল৷

  • Share this:

#হাওড়া: গত মঙ্গলবার আচমকাই রাজ্য মন্ত্রিসভা এবং তৃণমূলের জেলা সভাপতির পদ থেকে তাঁর ইস্তফার খবর ছড়িয়ে পড়েছিল৷ কিন্তু কেন তিনি রাজনীতি থেকে সাময়কি বিরতি নিলেন, তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল৷ ইস্তফার পর মুখ খুলেও পদত্যাগের কারণ কিছুটা ধোঁয়াশাই বজায় রাখলেন লক্ষ্মীরতন শুক্ল৷ খেলার জগতে মনোনিবেশ করার কথা বলেও ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে লক্ষ্মী বলেন, 'কিছু কথা মনের ভিতরে থাকাই ভাল৷ সব কিছু রাস্তায় নিয়ে আসতে নেই৷'

ইস্তফার পর এ দিন প্রথমবার সাংবাদিক বৈঠক করেন প্রাক্তন ক্রিকেটার লক্ষ্মীরতন শুক্ল৷ দলের মধ্যে কাজ করতে সমস্যা হচ্ছিল বলেই তিনি ইস্তফা দিয়েছেন বলে জল্পনা ছড়ায়৷ লক্ষ্মীর ইস্তফার পর পরই দলের মধ্যে পরিবেশ নিয়ে সরব হয়েছেন বৈশালী ডালমিয়া, রথীন চক্রবর্তীর মতো হাওড়ার শাসক দলের নেতানেত্রীরা৷ লক্ষ্মী অবশ্য এ দিন সেই বিতর্কে ঢুকতে চাননি লক্ষ্মী৷ তাঁর কথায়, 'গত সাড়ে চার বছরে যাঁদের সঙ্গে কাজ করেছি, তাঁদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানাতে চাই৷ কারও প্রতি কোনও ক্ষোভ নেই৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন আমাকে ভোটে দাঁড়াতে৷ ওনার প্রতি আমার শ্রদ্ধা ছিল, আছে আর থাকবে৷' বিতর্ক এড়ালেও ধোঁয়াশা রেখে লক্ষ্মী অবশ্য বলেন, 'আমি সরে আসিনি৷ বিধায়ক পদে থাকছি৷ কিছু জিনিস আমি সংবাদমাধ্যমে বলতে চাইনা৷ এমন কিছু কথা থাকে, যা ভিতরে থাকাই ভাল৷ কিছু জিনিস আমি রাস্তায় নিয়ে আসতে চাই না৷' তবে কী সেই কথা, তা নিয়ে মুখে কুলুপ আঁটেন লক্ষ্মী৷

ভবিষ্যতে রাজনীতিতে ফিরবেন কি না, তার উত্তরও স্পষ্ট ভাবে দেননি লক্ষ্মী৷ শুধু বুঝিয়ে দিয়েছেন, আপাতত রাজনীতি থেকে সরে যাচ্ছেন৷ প্রাক্তন বাংলা অধিনায়ক বলেন, 'বেশি কিছু বলতে চাই না৷ আপাতত খেলার দিকেই নজর দেব৷ আমার জীবনে কোনও অ্যাজেন্ডা নেই৷ স্পষ্ট ভাবে সবকিছু ভাবি৷' তবে তাঁর যে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা নেই, তা এ দিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন লক্ষ্মী৷ তিনি বলেন, সব দলকে সম্মান করেন তিনি৷

লক্ষ্মীর দাবি, দলের জেলা সভাপতি হিসেবেও সবাইকে নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করেছেন৷ গত সাড়ে চার বছরে কারও সঙ্গে রাজনীতি করেননি৷ তবে কিছুটা হতাশার সুরেই লক্ষ্মী বলেন, রাজনীতি না করেও সমাজের জন্য কাজ করা যায়৷ তিনিও সেই চেষ্টাই করবেন৷ পাশাপাশি, হিংসামুক্ত রাজনীতির জন্য সব দলের কাছে অনুরোধ করেছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার৷

Eron Roy Burman
Published by:Debamoy Ghosh
First published: