West Bengal Assembly Election 2021: বিজেপি-তে জিতেন্দ্র তিওয়ারি, বিরোধিতা ভুলে সুর বদলে গেল বাবুলেরও

West Bengal Assembly Election 2021: বিজেপি-তে জিতেন্দ্র তিওয়ারি, বিরোধিতা ভুলে সুর বদলে গেল বাবুলেরও

জিতেন্দ্রকে বিজেপিতে স্বাগত জানালেন বাবুল৷

গত ডিসেম্বর মাসে জিতেন্দ্রর বিজেপি-তে যোগদানের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল৷ দীর্ঘ নাটকের পর শেষ পর্যন্ত তৃণমূলেই থেকে যান তিনি৷

  • Share this:

    #কলকাতা: শেষ পর্যন্ত বিজেপি-তেই যোগ দিলেন আসানসোলের প্রাক্তন মেয়র এবং তৃণমূল নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷ বৈদ্যবাটীতে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সভাতেই বিজেপি-তে যোগ দিলেন পাণ্ডবেশ্বরের তৃণমূল বিধায়ক৷

    গত ডিসেম্বর মাসে জিতেন্দ্রর বিজেপি-তে যোগদানের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল৷ দীর্ঘ নাটকের পর শেষ পর্যন্ত তৃণমূলেই থেকে যান তিনি৷ যদিও দলের সঙ্গে সম্পর্ক আগের মতো মসৃণ হয়নি৷ ফলে আবারও বিজেপি-র সঙ্গে যোগাযোগ তৈরি হয় জিতেন্দ্রর৷ গত ডিসেম্বর মাসে জিতেন্দ্রর বিজেপি-তে যোগদান নিয়ে যিনি সবথেকে বেশি সরব হয়েছিলেন, সেই আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়ের গলাতেও এ দিন অন্য সুর শোনা গিয়েছে৷ বাবুলের কথায়, রাজনীতিতে কোনও কিছুই চিরকালীন নয়৷ বরং গত একমাসে তাঁর সঙ্গে জিতেন্দ্রর একাধিকবার কথা হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল৷

    গত ডিসেম্বর মাসে শুভেন্দু ্অধিকারীর সঙ্গেই মেদিনীপুরের সভায় বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার কথা ছিল জিতেন্দ্রর৷ কিন্তু শেষ মুহূর্তে তৎপর হয়ে পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ককে ধরে রাখে তৃণমূল৷ কলকাতায় এসে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে দেখা করে যান জিতেন্দ্র৷ তার আগে অবশ্য রাজনীতি থেকে বিরতি নেওয়ার কথাও শোনা গিয়েছিল জিতেন্দ্রর মুখে৷ যদিও অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে বৈঠকের পর ফের পুরনো দলেরই হয়েই সক্রিয় ভাবে কাজ করার কথা বলেছিলেন তিনি৷

    কিন্তু জিতেন্দ্রর উপর সম্ভবত পূর্ণ আস্থা ফেরেনি তৃণমূল নেতৃত্বের৷ তাই আসানসোলের পুর প্রশাসক বা জেলা সভাপতির পদ আর জিতেন্দ্রকে ফেরায়নি দল৷ ফলে দলে থেকে গেলেও কার্যত কোনও ভূমিকাই ছিল না পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়কের৷ ফের একবার তাই বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু হয় জিতেন্দ্রর৷

    এর আগের বার জিতেন্দ্রর দলে যোগ দেওয়ার বিরুদ্ধে সবথেকে বেশি সরব হয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়৷ সরাসরি অভিযোগ করেছিলেন, জিতেন্দ্র কয়লা পাচারের সঙ্গে যুক্ত৷ তাঁর বাধাতেই আসানসোলে উন্নয়নের কাজ করতে পারেননি বলেও অভিযোগ করেন বাবুল৷  একা বাবুল নন, রাজ্য স্তরের আরও বেশ কিছু নেতারও জিতেন্দ্রকে নিয়ে আপত্তি ছিল৷

    সেই সময় জিতেন্দ্র দলে যোগ না দিলেও বিজেপি-র শীর্ষ নেতৃত্ব বাবুলদের বুঝিয়ে দিয়েছিল, কাদের দলে নেওয়া হবে তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন দিল্লির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই৷ এ দিন বাবুলের কথাতেও যেন তারই প্রতিফলন৷ আসানসোলের সাংসদ বলেন, 'গত একমাসে অনেক বার আমার সঙ্গে জিতেন্দ্র তিওয়ারির কথা হয়েছে৷ উনি আশ্বাস দিয়েছেন, রাজ্যে বিজেপি সরকার গড়তে উনি আমাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ রেখে লড়বেন৷ তৃণমূলে থাকতে উনি বাধ্য হয়েই আসানসোলের উন্নয়নে বাধা দিয়েছিলেন৷ আসানসোলের বাসিন্দা হিসেবে প্রকাশ্যে তা নিয়ে আক্ষেপও করেছেন৷ আর আসানসোলে কয়লা পাচারের মতো বাকি বিষয়গুলি নিয়ে যা বলেছিলাম, সেগুলোর তদন্ত তো আলাদা ভাবে চলছে৷ তার সঙ্গে এর সম্পর্ক নেই৷ রাজনীতিতে কোনও কিছুই চিরকালীন নয়৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: