কাদা আর দূর্গন্ধ নয়, রাত পোহালেই নানা রঙে রঙিন হয়ে উঠবে শবর পাড়া

কাদা আর দূর্গন্ধ নয়, রাত পোহালেই নানা রঙে রঙিন হয়ে উঠবে শবর পাড়া
ফাইল ছবি

নারী দিবস বলে পাঁচ জন শবর মহিলাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

  • Share this:

#ঝাড়গ্রাম: রাত পোহালেই দোল। এক সাথে এত আবীর আগে কখনও দেখেনি ওঁরা। খেলা তো স্বপ্ন। আজ তাই মুঠো মুঠো আবীর হাতে পাওয়ার পর কালকে পর্যন্ত আর আটকে রাখা সম্ভব হয়নি ওদের। নিজেদের স্কুলের শিক্ষক, তাদের রেখা দিদা ও পাড়ার কিছু জনের সাথে একপ্রস্ত রঙ খেলে নিয়েছে কচিকাঁচারা।

ওরা সকলেই শবর শিশু। ঝাড়গ্রাম শহরের উপকন্ঠে ওদের বাস। প্রতিবারই নিজেদের মত সামান্য রঙ আর বাকিটা কাদা মেখেই খেলতে অভ্যস্ত তারা। তথাকথিত সভ্য মানুষ তাই দূরত্ব বজায় রাখে তাদের থেকে। তবে এবার শবরপাড়ায় অন্য ছবি। তাদের রেখা দিদা এবার স্কুলে তাদের জন্য আবীর নিয়ে পৌঁছে যান। পাড়ার কিছু যুবক শবর বাচ্চাদের জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছেন। সেই যুবকরা সঙ্গে পেয়েছেন ঝাড়গ্রাম পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রেখা সোরেনকে। যিনি শবর পড়ায় বাচ্চাদের দিদা বলে পরিচিত। বড়দের দিদি রেখা সরেন।

আজ স্কুলে এসে প্রথমে সমস্ত বাচ্চাদের আবীর দেওয়া হয়। নারী দিবস বলে পাঁচ জন শবর মহিলাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এরপর অবশ্য আর বাচ্চাদের আটকে রাখা যায়নি। আবীর নিয়ে মেতে ওঠে তাঁরা। রেখা সোরেন সমস্ত বাচ্চার গালে আবীর মাখিয়ে দেন। আবীর খেলায় মেতে ওঠে বাচ্চারা। বাকি আবীর নিয়ে ফের কালকে খেলবে শিশুরা।

First published: March 8, 2020, 8:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर