Home /News /south-bengal /
Crime: মেয়ে-জামাইয়ের জন্য মাংস আনতে বলেছিলেন স্ত্রী, রাগের চোটে স্বামী যা করলেন, তা দেখে চমকে যেতে হয়

Crime: মেয়ে-জামাইয়ের জন্য মাংস আনতে বলেছিলেন স্ত্রী, রাগের চোটে স্বামী যা করলেন, তা দেখে চমকে যেতে হয়

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Crime: জানা গিয়েছে, গতকাল প্রভাত ও রাধারানি কোনাই-এর মেয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে বারা গ্রামে বাপের বাড়িতে আসেন। রাতে খাবার জন্য স্বামীকে মাংস নিয়ে আসতে বলেন রাধারানি ।

  • Share this:

    #নলহাটি: মেয়ে-জামাই বাড়িতে আসবে, সেই কারণে সাধ করে রান্না করতে চেয়েছিলেন মা। পাঁচ পদ রেঁধে খাওয়াবেন, তেমন পরিকল্পনাও ছিল। সেই পরিকল্পনা মতো স্বামীকে বলেওছিলেন, মেয়ে-জামাইয়ের জন্য মাংস নিয়ে আসেন। তাতেই রণমূর্তি ধারণ করেন স্বামী। ঝামেলা এমন পর্যায়ে পৌঁছে যায় যে কোদাল নিয়ে স্ত্রীয়ের দিকে তেড়ে আসেন তিনি। আর তার পর যা করেন, তা দেখলে চোখ কপালে উঠবে।

    আরও পড়ুন : অলৌকিক ঘটনা! একই সন্তানের দু-দুবার জন্ম দিলেন মা! নিজেই জানালেন আশ্চর্য কাহিনী

    পুলিশের কাছে যে অভিযোগ জমা পড়েছে, তাতে বলা হয়েছে, মাংস আনতে বলার রাগে স্ত্রী-কে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের নলহাটি থানা এলাকার একটি গ্রামে। নিহতের নাম রাধারানি কোনাই, তাঁর বাড়ি এলাকার কোনাই পাড়ায। ঘটনায় অভিযুক্ত রাধারানির স্বামী প্রভাত কোনাইকে আটক করেছে নলহাটি থানার পুলিশ।

    আরও পড়ুন -  শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়েকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ, ফেরত দিতে হবে বেতন

    জানা গিয়েছে, গতকাল প্রভাত ও রাধারানি কোনাই-এর মেয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে বারা গ্রামে বাপের বাড়িতে আসেন। রাতে খাবার জন্য স্বামীকে মাংস নিয়ে আসতে বলেন রাধারানি । সেই নিয়ে স্বামী ও স্ত্রী-র বচসা বাধে। অভিযোগ সেই সময় প্রভাত কোনাই তাঁর স্ত্রীর গলায় কোদাল দিয়ে কোপ মারেন । চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে আসেন । তাঁরা রক্তাক্ত অবস্থায় রাধারাণী কোনাইকে উদ্ধার করে প্রথমে লোহাপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে আসেন। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে রাতেই রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় । সেখানেই তার মৃত্য ঘটে । নলহাটি থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ।

    অক্ষয় ধীবর

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Crime

    পরবর্তী খবর