দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

তিনমাস মাইনে নেই, হাওড়া স্টেশন চত্বর ও লঞ্চ যাত্রীদের কাছে থালা বাটি হাতে ভিক্ষা করলেন হাওড়ার ফেরি কর্মীরা

তিনমাস মাইনে নেই, হাওড়া স্টেশন চত্বর ও লঞ্চ যাত্রীদের কাছে থালা বাটি হাতে ভিক্ষা করলেন হাওড়ার ফেরি কর্মীরা
Photo-File

কর্মচারীদের বেতন সমস্যা মেটাতে রাজ্য সরকারের অর্থ দফতর থেকে সমবায় দফতরকে প্রায় ২ কোটি টাকা অনুদানও দেওয়া হয়। কিন্তু সমবায় দফতরের অধীনে থাকা হুগলি নদী জলপথ পরিবহন কর্তৃপক্ষ সেই টাকা কর্মচারীদের দেননি বলে অভিযোগ৷

  • Share this:

#হাওড়া: পোশাক দেখে মনে হবে না এরা ভিক্ষুক, তবে মানসিক যা অবস্থা তাতে ভিক্ষা করা ছাড়া আর কোন উপায় নাই থালা হাতে বললেন এক মহিলা ফেরী কর্মী | “ মাইনে  নাই, বোনাস নাই, তাইতো আমরা ভিক্ষা চাইছি ।”  থালা বাটি নিয়ে এক অভিনব বিক্ষোভে সামিল হলেন হুগলি নদী জলপথ পরিবহনের কর্মীরা। কর্মীদের অভিযোগ, পুজোর বোনাস তো দূরের কথা দীর্ঘ তিনমাস কোনও বেতনই পাননি তারা | বকেয়া বেতনের দাবিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দে্যাপাধ্যায়ের কাছে আবেদন করেছিলেন।

কর্মচারীদের বেতন সমস্যা মেটাতে রাজ্য সরকারের অর্থ দফতর থেকে সমবায় দফতরকে প্রায় ২ কোটি টাকা অনুদানও দেওয়া হয়। কিন্তু সমবায় দফতরের অধীনে থাকা হুগলি নদী জলপথ পরিবহন কর্তৃপক্ষ সেই টাকা কর্মচারীদের দেননি বলে অভিযোগ। বেতন সমস্যায় সংস্থার প্রায় ৩৫০ কর্মী।  এদিন এক বিক্ষোভকারী কর্মী  দেবান্তর গুছাইত বলেন, “ কর্তৃপক্ষ এক মাসের বেশী বকেয়া বেতন দিতে নারাজ। পরিষেবা বজায় রেখেই এখন বিক্ষোভ দেখানো হচ্ছে। সমস্যার সমাধান না হলে ভবিষ্যতে বৃহত্তর আন্দোলন হবে।” বর্তমানে হুগলি নদী জলপথ পরিবহনকে পরিচালনা করেন প্রশাসক। কর্মচারীদের অভিযোগ, প্রশাসকের দায়িত্বে যঁারা রয়েছেন তঁাদের বার বার বেতন সমস্যার কথা বলা হলেও সমস্যার সমাধান হয়নি। বিক্ষোভকারী অপর এক কর্মী কাকলি কঁাড়ার জানালেন, গত আগস্ট মাসেই কর্মচারীদের শেষবার বেতন হয়। প্রবল আর্থিক কষ্টের মধে্য পরে অবশেষে এদিন ভিক্ষার থালা নিয়ে রাস্তায় নামেন তঁারা। লঞ্চের যাত্রীদের কাছেও ভিক্ষা চান বিক্ষোভকারীরা। এই প্রসঙ্গে রাজে্যর সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় জানান, বকেয়া বেতনের অনেকটাই দেওয়া হয়েছে জলপথ পরিবহনের কর্মীদের। আর যেটুকু বাকি আছে তা মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

Debasish Chakraborty

Published by: Debalina Datta
First published: November 6, 2020, 7:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर