• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • শহিদ রাজেশ ওরাংয়ের মায়ের হাতে তুলে দিলেন ১১ লক্ষ টাকা, বীরভূমের বীরপুত্রকে কুর্নিশ রাজ্যপালের

শহিদ রাজেশ ওরাংয়ের মায়ের হাতে তুলে দিলেন ১১ লক্ষ টাকা, বীরভূমের বীরপুত্রকে কুর্নিশ রাজ্যপালের

বীরভূমে বহু প্রতিভাবান মানুষ জন্মেছেন, রাজেশ ওরাংয়ের পরিবারের হাতে ক্ষঙিপূরণের চেক তুলে দিতে এসে মমতা বীরভূমের সফল কন্যা বলেন রাজ্যপাল

বীরভূমে বহু প্রতিভাবান মানুষ জন্মেছেন, রাজেশ ওরাংয়ের পরিবারের হাতে ক্ষঙিপূরণের চেক তুলে দিতে এসে মমতা বীরভূমের সফল কন্যা বলেন রাজ্যপাল

বীরভূমে বহু প্রতিভাবান মানুষ জন্মেছেন, রাজেশ ওরাংয়ের পরিবারের হাতে ক্ষঙিপূরণের চেক তুলে দিতে এসে মমতা বীরভূমের সফল কন্যা বলেন রাজ্যপাল

  • Share this:

#বীরভূম:   মহম্মদবাজারের বেলগড়িয়া গ্রামে রাজেশের বাড়িতে গিয়েছিলেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল। সঙ্গে গিয়েছিলেন ইস্টার্ন রিজিয়নের কামান্ডার অনিল চৌহান। রাজেশের বাড়িতে এসে প্রথমে তিনি রাজেশের ছবিতে মালা দেন। এরপর পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন।  সাংবাদিকদের   মুখোমুখি হয়ে রাজ্যপাল শহিদ ও শহিদের পরিবারকে কুর্নিশ করেন ৷

বীরভূমের বিখ্যাতদের তালিকায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধায়ের নাম বললেন রাজ্যপাল।   রাজেশ ওরাং কে বীরভূমের বীরপুত্র বললেন রাজ্যপাল। প্রত্যেককে সামাজিক দূরত্ব পালন ও মাস্ক পরার কথাও বলেন তিনি। পাশাপাশি ১ হাজার মাস্ক তুলে দিলেন তিনি রাজেশের পরিবারের হাতে। রাজ্যপালের পক্ষ থেক্র ১১ লক্ষ টাকার চেক ও আর্মি গ্রুপ ইনসুরেন্সের ৪০ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেওয়া হয়।

শুক্রবার সকালে ভারতীয় সেনাবাহিনীর চপারে সিউড়ীর চাঁফমারি মাঠে নামেন তিনি। এরপর সড়ক পথে বীরভূমের বীর শহীদ রাজেশ ওরাং -এর বাড়িতে এসে পৌঁছান পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। রাজেশ ওরাং -এর মায়ের হাতে ১১ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন তিনি। শুক্রবার সকালে তিনি হেলিকপ্টারে করে সিউড়িতে আসেন। সেখান থেকে সড়কপথে তিনি রাজেশের গ্রামে যান। শহীদ রাজেশ ওরাং -এর ছবিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানান তিনি। এদিন রাজ্যপালের সঙ্গে ছিলেন চিফ কমান্ডিং অফিসার অনিল চৌহান। তারপর রাজ্যপাল জানান, “বীরভূম বীরের ভূমি। এই মাটিতে নোবেলজয়ী অমর্ত্য সেনের জন্ম, গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শান্তিনিকেতন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এখানে, কবি জয়দেব গীতগোবিন্দ রচনা করেছিলেন, আবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই মাটি থেকেই রাজ্য ভার নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন। ভারতীয় সেনাবাহিনীর হয়ে দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছে রাজেশ ওরাং।

ওনার আত্মবলিদানকে মানুষ যেন জীবনের লক্ষ্যে পরিণত করে এও বলেন জগদীপ ধনখড়৷  এদিন রাজ্যপাল রাজেশের পরিবারের সাথে বেশ খানিকক্ষণ কথা বলেন। দুপুর বারোটায় হেলিকপ্টারে করে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি।

Supratim Das

Published by:Debalina Datta
First published: