#EgiyeBangla: টেরাকোটা শিল্পের সুদিন, সরকারি সাহায্যে লাভবান শিল্পীরা

বাঁকুড়ার টেরাকোটা শিল্পের খ্যাতি দেশজোড়া । শিল্পীদের আরও এগিয়ে আনতে বিভিন্ন মেলায় বিপণনের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার।

বাঁকুড়ার টেরাকোটা শিল্পের খ্যাতি দেশজোড়া । শিল্পীদের আরও এগিয়ে আনতে বিভিন্ন মেলায় বিপণনের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার।

  • Share this:

    #বাঁকুড়া: বাঁকুড়ার টেরাকোটা শিল্পের খ্যাতি দেশজোড়া । শিল্পীদের আরও এগিয়ে আনতে বিভিন্ন মেলায় বিপণনের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও সমবায় সমিতি গড়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই জিআই স্বীকৃতি পেয়েছে পাঁচমুড়ার টেরাকোটা শিল্প। ফলে বিপণনের বিশাল বাজার খুলে যাবে বলে আশাবাদী তাঁরা।

    পোড়া মািটর হাতি-ঘোড়া। শঙ্খ। দেবদেবীর মূর্তি। টেরাকোটা শিল্পের জেলা হিসেবে বারবার উঠে এসেছে লাল মাটির জেলার নাম। লাল মাটিই দিয়েছে পরিচয়। বাঁকুড়ার পাঁচমুড়ার মৃৎশিল্পীদের নিপুণ হাতের কৌশলে তৈরি পোড়া মাটির হাতি ঘোড়া জেলার গন্ডি ছাড়িয়ে রাজ্যের বিভিন্ন বাজার দখল করেছে আগেই। মূলত পুজোর সামগ্রী হিসেবে গ্রামে গঞ্জে বিক্রি হত পোড়া মাটির িজনিস। শহরেও বেড়েছে চাহিদা। ঘর সাজাবার উপকরণ হিসেবে ড্রইং রুম দখল করেছে টেরাকোটা শিল্প।

    চাহিদা বিপুল থাকায় লাভের মুখ দেখছেন এখানকার শিল্পীরা। সরকারি সাহায্যে আরও আর্থিক লাভবান হয়েছেন তাঁরা। বিভিন্ন মেলায় বিপণনের সুযোগ মিলছে। তৈরি হয়েছে সমবায় সমিতিও।

    পাঁচমুড়ার টেরাকোটা শিল্প ইতিমধ্যেই জিআই স্বীকৃতি আদায় করেছে। শিল্পীদের আশা, এবার বিদেশেও স্থান দখল করবে পাঁচমুড়ার পোড়ামাটির শিল্প। গুণগত দিক থেকে পোড়ামাটির সামগ্রীর আকর্ষণ আরও বাড়াতে ইচ্ছুক শিল্পীরা। সরকারের কাছে আধুনিক প্রশিক্ষণের দািব জানিয়েছেন তাঁরা।

    First published: