'আট বছর ফিরিয়ে দাও, নয় বিয়ে করো' ! প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় প্রেমিকা

রাজ্যপুলিশে কর্মরত সৌমেন পাত্রের সঙ্গে পাশের গ্রামের এক যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক দীর্ঘ আট বছর ধরে। কিন্তু বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েও সে কথা মানছেন না সৌমেন পাত্র। এবার তাই বিয়ের দাবিতে পাত্রের বাড়িতে ধরনায় যুবতী।

রাজ্যপুলিশে কর্মরত সৌমেন পাত্রের সঙ্গে পাশের গ্রামের এক যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক দীর্ঘ আট বছর ধরে। কিন্তু বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েও সে কথা মানছেন না সৌমেন পাত্র। এবার তাই বিয়ের দাবিতে পাত্রের বাড়িতে ধরনায় যুবতী।

  • Share this:

    #বাঁকুড়া: একদিকে করোনায় মানুষের জীবন নাজেহাল। কত কিছুই হচ্ছে না। পড়াশুনো থেকে অর্থনীতি সব কিছুই টাল-মাটাল। কিন্তু প্রেমের জোয়ার থেমে নেই। প্রেম মানে না কোনও বাধা। প্রেমে জন্য জান হাজির। এবার সেই প্রেমের দাবি নিয়েই প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসলেন প্রেমিকা। ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার নাচনকোন্দাগ্রামে।

    রাজ্যপুলিশে কর্মরত সৌমেন পাত্রের সঙ্গে পাশের গ্রামের এক যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক দীর্ঘ আট বছর ধরে। কিন্তু বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েও সে কথা মানছেন না সৌমেন পাত্র। এবার তাই বিয়ের দাবিতে পাত্রের বাড়িতে ধরনায় যুবতী। হলুদ পোশাক, লাল ওড়নায় মুখ ঢেকে পাত্রের মাটির দরজায় ধরনায় যুবতী।

    '৮ বছর ফিরিয়ে দাও, নয় বিয়ে করো', এ কথা লিখে পাত্রের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেন যুবতী। তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, " আট বছর ধরে আমার সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক রয়েছে সৌমেনের। বিয়ের কথা বললেই বলে করবো, করবো। কিন্তু বিয়ে করার নাম নেই। মাঝখানে ৬ মাস আগে একটু ঝামেলা হয়েছিল। তারপর সব ঠিক হয়ে যায়। কিন্তু কিছুতেই বিয়ে করতে চায় না সে। লুকিয়ে লুকিয়ে দেখা করতে আসে। বলে আমায় ভালোবাসে কিন্তু বিয়েতে নাকি বাড়ির লোক রাজি নয়। অনেক হয়েছে আমি আর অপেক্ষা করতে পারবো না। হয় বিয়ে করো, নয় আমার এতগুলো বছর ফিরিয়ে দাও।" এদিকে যুবতীর কাণ্ড দেখে অবাক সকলে।

    তবে শুধু মুখের কথা নয়। ওই যুবতী তাঁর মোবাইল ফোনে নিজেদের ছবিও দেখিয়েছেন। এবং যুবতীর সব কথাই প্রমাণ সাপেক্ষ। এ ঘটনায় তাজ্জব গ্রামের লোক। এবার একটা সিদ্ধান্ত নিতেই হবে ওই যুবককে।  এদিকে যতক্ষণ না সিদ্ধান্ত হচ্ছে কোথাও নড়বেন না ওই যুবতী। হাতে পোস্টার নিয়ে যুবকের বাড়ির মাটির দরজায় বসে রয়েছেন তিনি। তবে এই ঘটনায় এখনও সামনে আসেননি ওই যুবক। ভালোবাসার কথা বলে, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে পালিয়ে যাওয়া যে চলবে না, তা এতক্ষণে বুঝে গিয়েছেন ওই প্রেমিক !

    Published by:Piya Banerjee
    First published: