মণ্ডপ যেন যুদ্ধক্ষেত্র, পশ্চিম প্রফুল্লকানন অধিবাসী সর্বজনীনে এবার মাটির গল্প

মণ্ডপ যেন যুদ্ধক্ষেত্র, পশ্চিম প্রফুল্লকানন অধিবাসী সর্বজনীনে এবার মাটির গল্প

মণ্ডপে ঢুকতে গিয়ে থমকে দাঁড়াতে হবে। ঠিক যেন দেশের সীমানা। বলা ভাল ব্যাটলফিল্ড।

  • Share this:

#কেষ্টপুর: মাটি ছিল পুঁজি। সেই মাটি হারানোর যন্ত্রণা অনেকেই ভোলেননি এখনও। মাটির দখল নিয়ে উত্তাল আজ সীমান্ত। বুলেটে ঝাঁঝরা কত শত প্রাণ। কেষ্টপুর পশ্চিম প্রফুল্লকানন অধিবাসী সর্বজনীনে এবার এক মাটির সন্তান।

মাটির টান। এড়ানো কঠিন। মাটির আধিপত্য নিয়ে নিত্য লড়াই। দেশভাগের যন্ত্রণা পেরিয়ে এখনও অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই। দেশের সীমানা রক্ষায় নিরন্তর রক্তক্ষয়। সীমানায় রণহুংকার। বাতাসে বারুদের গন্ধ। পুলওয়ামা, উরি, পাঠানকোট.....দীর্ঘ হচ্ছে তালিকা। ঢাকের বোলে কী ঢাকা পড়ে অস্ত্রের ঝনঝনানি?

কেষ্টপুর পশ্চিম প্রফুল্লকানন অধিবাসী সর্বজনীনে এবার মাটির গল্প। যে মাটির দখল নিয়ে চলছে নিত্য টানাপোড়েন। শিল্পীর ভাবনায়, পুজোর থিম, এক মাটির সন্তান।

মণ্ডপে ঢুকতে গিয়ে থমকে দাঁড়াতে হবে। ঠিক যেন দেশের সীমানা। বলা ভাল ব্যাটলফিল্ড। যেখানে চলছে অঘোষিত যুদ্ধ। ঘর-বাড়ির শরীর-জোড়া অজস্র বুলেটের দাগ। সাদা-কালো ছবিতে উদ্বাস্তু-ইতিহাস।

কোথাও কাঠের কফিন। কোথাও রবারের বুলেট। থাকছে ফাইটার জেট। পাশাপাশি রয়েছে কুয়ো। যেখান থেকে একইসঙ্গে জল নিচ্ছেন দু’দেশের মানুষ। শিল্পী অমর সরকারের ভাবনায় স্বপ্ন-বাস্তব মিলেমিশে এক পশ্চিম প্রফুল্লকাননে।

First published: September 17, 2019, 6:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर