Home /News /south-bengal /
তৃণমূল ও সিপিএমের জোট! শতাব্দী প্রাচীন সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির নির্বাচনে জোট

তৃণমূল ও সিপিএমের জোট! শতাব্দী প্রাচীন সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির নির্বাচনে জোট

Century old cooperative society in Kontai will be run by TMC and left collaboration

Century old cooperative society in Kontai will be run by TMC and left collaboration

দু-দলের তৃণমূল (TMC) ও সিপিএমের (left) এই জোট বা আসন রফার মাধ্যমে সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির ভোটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ও পেয়েছে তৃণমূল ও বামফ্রন্ট জোট।

  • Share this:

#কাঁথি: ভোটে জোট, তাও আবার তৃণমূল (TMC) ও সিপিএমের (left) জোট! রীতিমতো আসন রফা করেই কাঁথিতে (Kontai) পুরভোটের মাঝেই শতাব্দী প্রাচীন সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির নির্বাচনে জোট গড়লো বাম ও তৃণমূল। এবং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ও পেয়েছে এই জোট! তবে বিরোধী বিজেপি প্রার্থীদের নমিনেশন জমা দিতে না দিয়েই এই জয় বলে অভিযোগ করেছে বিজেপি!

দু-দলের তৃণমূল (TMC) ও সিপিএমের (left) এই জোট বা আসন রফার মাধ্যমে সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির ভোটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ও পেয়েছে তৃণমূল ও বামফ্রন্ট জোট। যদিও বাম-তৃনমুল জয় বিরোধীদের নমিনেশন করতে না দিয়েই করা হয়েছে বলে বিজেপির অভিযোগ।

আরও পড়ুন - Viral Video: নিলামে এসে হাসিখুশিই ছিলেন Suhana Khan, তারপর যা হল,ভাইরাল ভিডিও

বিজেপির অভিযোগ, নমিনেশন করতে গেলে বামফ্রন্ট ও তৃণমূল কর্মীরা জোট বেঁধে বিজেপির প্রার্থী সহ কর্মীদের ব্যাপক মারধর চালিয়েছে। যা নিয়ে রাজনৈতিক তরজা এবং চাপান উতোরও শুরু হয়েছে। তবে এসবের মধ্যেই সিপিএমের সঙ্গে জোট গড়ে এই সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির পরিচালনার দখল নিয়েছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। যুযুধান দুই রাজনৈতিক দলের স্থানীয় স্তরের এই জোট নিয়ে জেলা জুড়েই শোরগোল শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন - Bankura: নির্বাচনের কচাকচি ভুলে, চায়ের কাপে একসঙ্গে আড্ডায় বাম-তৃণমূল-বিজেপি

জানা গেছে, পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি তিন নম্বর ব্লকের নাচিন্দা ভাইটগড় সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির নির্বাচনেই এই জোট দেখা গিয়েছে। সমিতি এলাকার মোট তিনটি জোনের ৪৫ টি আসনে মনোনয়ন জমার কাজ শেষ হয়েছে গত বৃহস্পতিবার। জানা গেছে, তৃণমূলের তরফে ২৩ জন আর বাকি ২২ টি আসনে সিপিএম সমর্থিতরা মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, বিজেপি সমর্থিত প্রার্থীদের নমিনেশন পত্র জমা দিতে বাধা দিয়েছে শাসক তৃণমূল ও সিপিএম। এদিকে এই সমবায় সমিতির পরিচালন কমিটির নির্বাচনে সবকটি আসনে শাসক দল তৃণমূল কেন মনোনয়ন দিল না তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে।

অন্যদিকে সিপিএমের রাজ্য নেতারা যেখানে তৃণমূল ও বিজেপি থেকে সম দূরত্ব বজায় রাখার নিদান দিচ্ছেন, সেখানে সিপিএম নেতারা কি করে এই জোটকে সমর্থন করছেন তা নিয়ে নিচুতলায় যথেষ্ট ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। সিপিএমের রাজ্য নেতারা যখন একটানা অভিযোগ করে যাচ্ছেন, বজবজ, সাঁইথিয়া ও দিনহাটা সহ বেশিরভাগ পৌরসভায় শাসক দল বিরোধীদের নমিনেশন পত্র পর্যন্ত তুলতে দেয়নি। সেখানে সেই দলের সঙ্গে জোট করে ক্ষমতার স্বাদ নেওয়ার চেষ্টা দেখে অবাক রাজনৈতিক মহলও। সবমিলে রাজ্যে পৌরসভা ভোটের মধ্যেই পূর্ব কাঁথির এই জোট গড়া নিয়ে যথেষ্টই শোরগোল পড়েছে।

যদিও জেলা সিপিএম সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য তথা জেলা সমবায় সমিতি বাঁচাও কমিটির চেয়ারম্যান হিমাংশু দাস বলেছেন তৃণমূল কংগ্রেস ও বামফ্রন্ট সমর্থিতদের জোট এটা ঠিক কথা নয়। সবকটি আসনে বামফ্রন্ট প্রার্থী দিতে সক্ষম হয়নি। তবে তৃণমূল সবকটা আসনে কেন প্রার্থী দেয়নি সেটা তাঁর অজানা বলেই দাবি করেছেন তিনি। সমবায় বাঁচাতে স্থানীয় স্তরে এই ধরনের কোন ঘটনা ঘটেছে। তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা সমবায় সমিতির কর্মকর্তা অমৃতাংশু প্রধান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে দল বড় কথা নয়, সমবায়ের সঙ্গে যুক্ত বিশিষ্ট সমবায়ীদের চিহ্নিত করে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কিন্তু বিজেপির পদপ্রার্থীদের মারধর করে নমিনেশন করতে দেওয়া হয়নি বলে যেকথা বলা হচ্ছে সেই অভিযোগ ঠিক নয়। তবে গোটা ঘটনা নিয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি বিজেপি নেতৃত্ব।

Sujit Bhoumik

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Left, Purba medinipur, TMC

পরবর্তী খবর