বর্ধমানে জাতীয় সড়কে বামেদের অবরোধে আটকে তুমুল বিক্ষোভের মুখোমুখি রাজ্যের দুই মন্ত্রী

বর্ধমানে জাতীয় সড়কে বামেদের অবরোধে আটকে তুমুল বিক্ষোভের মুখোমুখি রাজ্যের দুই মন্ত্রী

কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে শনিবার দুপুরে বর্ধমান নবাবহাটের কাছে দু নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বামেরা।

কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে শনিবার দুপুরে বর্ধমান নবাবহাটের কাছে দু নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বামেরা।

  • Share this:

#বর্ধমান: সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার পথে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। তাঁর গাড়িতে হামলাও হয়। বর্ধমানের নবাবহাটে তাঁর গাড়ি আটকে তুমুল বিক্ষোভ দেখায় বাম কর্মী সমর্থকরা। ঝান্ডা দিয়ে মন্ত্রীর গাড়িতে আঘাত করা হয়। কোনওরকমে অবরোধকারীদের হাত থেকে মন্ত্রীর গাড়ি উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বর্ধমানের চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অবরোধের জেরে দীর্ঘক্ষন আটকে থাকেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুও। তাঁর গাড়ি আটকেও বিক্ষোভ দেখানো হয়।

কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে শনিবার দুপুরে বর্ধমান নবাবহাটের কাছে দু নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বামেরা। সেই বিক্ষোভ চলাকালীন সেখানে পৌঁছয় দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুর গাড়ি। অবরোধে আটকে পড়েন মন্ত্রী। তাঁর গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখায় বাম কর্মী সমর্থকরা। মিনিট পনেরো পর বাম নেতাদের হস্তক্ষেপে ঘেরাও মুক্ত হন দমকল মন্ত্রী। ঠিক সেই সময় সেখানে পৌঁছয় পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতররে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের গাড়ি। সেই গাড়ি আটকে তুমুল বিক্ষোভ দেখায় বাম কর্মী সমর্থকরা। দীর্ঘক্ষণ তাঁর গাড়ি আটকে স্লোগান দিতে থাকে বাম কর্মী সমর্থকরা। চোর চোর স্লোগান দেওয়া হয়। বিক্ষোভকারীদের সরাতে কার্যত হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে। বেশ কিছুক্ষণ আটকে থাকার পর পুলিশের হস্তক্ষেপে মন্ত্রীর গাড়ি ঘেরাও মুক্ত হয়। রওনা দেওয়ার মুহূর্তে মন্ত্রীর গাড়িতে লাল ঝান্ডা দিয়ে আঘাত করে বাম কর্মী সমর্থকরা।

এ ব্যাপারে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বলেন, আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলা হল। কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আমরাও তো আন্দোলন করেই চলেছি। ওরা ওই ধরনের আন্দোলন পছন্দ করে। বাংলার মানুষ তার প্রতিবাদ জানাবেন। এদিন পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে একটি দমকল কেন্দ্রের উদ্বোধন করতে যাওয়ার পথে আটকে পড়ে দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু ও প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। দমকল মন্ত্রী বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তৃণমূল কংগ্রেস কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। তবে একদিন পথ অবরোধ করে কাজের কাজ কিছু হবে না। কৃষি আইনের বিরুদ্ধে জোরদার আন্দোলন জরুরি। সারা ভারত কৃষক সভার পূর্ব বর্ধমান জেলা কমিটির সম্পাদক সৈয়দ হোসেন বলেন,সারা দেশের সঙ্গে এখানেও কর্মসূচি পালিত হয়েছে মন্ত্রীরা কোথায় আটকে পড়েছিলেন তা আমরা দেখিনি।

Published by:Pooja Basu
First published:

লেটেস্ট খবর