Home /News /south-bengal /
Bardhaman News: কার্জনগেটের ঐতিহাসিক তোরণের সামনে বসছে রাজারানির মূর্তি, বর্ধমানে সাজ সাজ রব

Bardhaman News: কার্জনগেটের ঐতিহাসিক তোরণের সামনে বসছে রাজারানির মূর্তি, বর্ধমানে সাজ সাজ রব

Bardhaman News

Bardhaman News

বিশেষ অতিথি আসছেন বর্ধমান রাজবাড়িতে। বড়লাট লর্ড কার্জন। হাতির পিঠে বিশেষ আসন। (Bardhaman News)

  • Share this:

#বর্ধমান: চারদিকে সাজ সাজ রব। বিশেষ অতিথি আসছেন বর্ধমান রাজবাড়িতে। বড়লাট লর্ড কার্জন। হাতির পিঠে বিশেষ আসন। তাতে চাপিয়ে আনা হবে তাঁকে। তাঁর সম্মানে তৈরি হল সুদৃশ্য তোরণ। সেটা ১৯০৪ সালের কথা। এখন সেই তোরণের নাম বিজয় তোরণ হলেও তার কার্জন গেট নামেই অধিক পরিচিতি। সেই কার্জনগেটের সামনে বসতে চলেছে রাজা রানির মূর্তি। (Bardhaman News)

বর্ধমানের ঐতিহাসিক স্থাপত্য বিজয় তোরণের প্রতিষ্ঠাতা তৎকালীন মহারাজা বিজয়চাঁদ মহাতাব ও মহারানি রাধারানি দেবীর মূর্তি বসতে চলেছে। এই দুটি মুর্তি বসবে কার্জন গেট বা বিজয় তোরণের দুদিকে। এই  উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক খোকন দাস। তিনি জানিয়েছেন, চলতি মাসেই  রাজারানির মূর্তির আবরণ উন্মোচন হবে। সেই অনুষ্ঠানে বর্ধমান রাজ পরিবারের বর্তমান প্রতিনিধিদেরও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: দিল্লির থানায় আটক বাংলার সিআইডি অফিসাররা, সংবিধান মনে করিয়ে ফুঁসে উঠছে তৃণমূল

ইতিমধ্যেই কার্জন গেটের ৩০০ফুটের মধ্যে দৃশ্য দূষণকারী সব বিজ্ঞাপনের বোর্ড, হোর্ডিং, ফ্লেক্স খুলে ফেলা হয়েছে। কার্জন গেটকে আরও দৃশ্যমান করার জন্য দুদিকের বাড়ি সহ সংলগ্ন এলাকা  নীল সাদা রং করে পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। কার্জন গেটকে রঙিন আলোয় আলোকিত করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরপর এই তোরণের প্রতিষ্ঠাতা মহারাজা ও রাণীর পূর্ণাবয়ব দুটি মূর্তি বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। মূর্তি দুটি তোরণের দুদিকের রেলিংয়ের মধ্যে বসানো হবে। অনেক সময় রেলিংয়ের ভেতরের অংশ অপরিচ্ছন্ন থাকত। মূর্তি বসলে সৌন্দর্য বাড়বে বলে মনে করছেন বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন: এ অর্পিতা সে অর্পিতা নয়, ক্যাশ কুইনের কান্না দেখে কষ্ট পাচ্ছেন ছেলেবেলার বন্ধু! অজানা তথ্যে চাঞ্চল্য

বর্ধমানের ইতিহাসবিদ সর্বজিৎ যশ বলেন, এটি একটি ভালো উদ্যোগ। বর্ধমান মহারাজ বিজয়চাঁদ মহাতাব ১৯০৪ সালে তৎকালীন বড়লাট লর্ড কার্জনকে বিশিষ্ট অতিথি হিসেবে বর্ধমান শহরে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। লর্ড কার্জনকে সম্মান জানানোর জন্য বিজয়চাঁদ জি টি রোড এবং বি সি রোডের সংযোগ স্থলে একটি অপূর্ব প্রবেশ দ্বার নির্মাণ করান।বর্তমানে এটি লোকমুখে কার্জন গেট নামে পরিচিত হলেও, উদ্বোধনের সময় নাম দেওয়া হয়েছিল স্টার অফ ইন্ডিয়া। স্বাধীনতা পরবর্তীকালে এটির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় বিজয় তোরণ।

Published by:Raima Chakraborty
First published:

Tags: Bardhaman, Bardhaman news

পরবর্তী খবর