Modi Attacks Mamata: 'দিদি কি মিহিদানা খান না!' বর্ধমানে দাঁড়িয়ে কেন মমতার মিষ্টি-প্রীতির খোঁজ মোদির?

Modi Attacks Mamata: 'দিদি কি মিহিদানা খান না!' বর্ধমানে দাঁড়িয়ে কেন মমতার মিষ্টি-প্রীতির খোঁজ মোদির?

মোদির নিশানায় 'দিদি'

এদিন শুরু থেকেই বিজেপির জেতা নিয়ে চূড়ান্ত 'কনফিডেন্ট' রূপে অবতীর্ণ হন মোদি। দাবি করেন, 'মাত্র চার দফা ভোট হয়েছে বাংলায়। এর মধ্যেই তৃণমূল সাফ হয়ে গেছে।'

  • Share this:

    #বর্ধমান: ফের মোদির নিশানায় 'দিদি'। সোমবার, বর্ধমানের সভার একদম শুরু থেকেই 'দিদি'কে (Mamata Banerjee) নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। কটাক্ষের সুরে বললেন, 'বর্ধমানের দুটি জিনিস প্রসিদ্ধ। চাল আর মিহিদানা। বর্ধমানের সব কিছুতেই মিষ্টত্ব আছে। কিন্তু দিদি কি মিহিদানা পছন্দ করেন না? নাহলে দিদির মধ্যে এত তিক্ততা কেন? দিদি আসলে বুঝতে পারছেন, হার নিশ্চিত। আপনাকে রাগ দেখাতে হবে তো, তাহলে মোদির উপর দেখান। আপনি গালি দিতে চান, তাহলে মোদিকে দিন। কিন্তু দিদি শুনে রাখুন, বাংলার গর্ব, বাংলার পরিচিতিকে অপমান করবেন না। আপনার এই অহংকার বাংলার মানুষ আর সহ্য করবে না।'

    এদিন শুরু থেকেই BJP-র জেতা নিয়ে চূড়ান্ত 'কনফিডেন্ট' রূপে অবতীর্ণ হন মোদি। দাবি করেন, 'মাত্র চার দফা ভোট হয়েছে বাংলায়। এর মধ্যেই তৃণমূল সাফ হয়ে গেছে। দিদি আপনাদের সঙ্গে খেলার কথা বলেছিলেন। দিদির সঙ্গেই খেলা হয়ে গিয়েছে। দিদিকে নন্দীগ্রামের মানুষই ক্লিন বোল্ড করে দিয়েছে। প্রথম চার দফাতেই বিজেপির সিটের সেঞ্চুরি হয়ে গিয়েছে।'

    এখানেই থেমে থাকেননি প্রধানমন্ত্রী। বামেদের প্রসঙ্গ টেনে এনে মোদির খোঁচা, ' যেভাবে কংগ্রেস ও সিপিএম ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার পর আর ফেরেনি, সে রকম দিদি আপনিও যে এবার চলে যাবেন, আর ফিরবেন না। দিদির পুরো দলকে মাঠছাড়া করেছে বাংলার মানুষ।'

    মোদির 'দিদি, ও দিদিইইইইই' ডাক নিয়ে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছে তৃণমূল। এমনকী এ নিয়ে পথে নেমে বিক্ষোভও দেখিয়েছেন বহু মহিলা। তবে, প্রধানমন্ত্রী যে নিজের অবস্থান থেকে সরছেন না, তা এদিনও বুঝিয়ে দেন। উপস্থিত জনতার সামনেই ফের মোদির ডাক, 'দিদি, আরে ও দিদিইইইই...... আর কত বাংলার মানুষের শোষন করবেন! আর কত কাটমানি নেবেন বাংলার মানুষের কাছ থেকে। নেতাদের বড় বড় ঘর, গাড়ি, আর বাংলার মানুষ বঞ্চিত হবে না। বাংলার মানুষকে আর লুঠ করতে দেওয়া হবে না। বাংলার বিজেপি সরকার আসল পরিবর্তন নিয়ে আসবে।'

    Published by:Suman Biswas
    First published: