করোনার বিধিনিষেধে বাড়িতেই জুয়ার আসর, গ্রেফতার ৯ জন 

বর্ধমানের গোদা এলাকায় বাড়ির মালিক সহ ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে

বর্ধমানের গোদা এলাকায় বাড়ির মালিক সহ ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে

  • Share this:

#বর্ধমান: বাড়ির মধ্যেই চলছিল জুয়ার আসর। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযান বর্ধমান থানার পুলিশের। টাকার বিনিময়ে জুয়া খেলার অভিযোগে বর্ধমানের গোদা এলাকায় বাড়ির মালিক সহ ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে। ধৃতদের বুধবার বর্ধমান আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল গোদার বানপাড়ায় হাফিজুর রহমানের বাড়িতে জুয়ার ঠেক বসেছিল। বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়িতে হানা দেয়। ঘটনাস্থল থেকে হাতেনাতে ধরা হয় ৯ জনকে। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের কাছ থেকে ৩২০০টাকা সহ জুয়া খেলার জন্য ব্যবহার করা কিছু তাসের বান্ডিল উদ্ধার করা হয়েছে। বর্ধমান শহরের আনাচে-কানাচেতে চলছে গোপনে ভাবে জুয়ার আসর। এই জুয়ার আসর বন্ধ করতে উঠেপড়ে লেগেছে পুলিশও। বর্ধমানের গোদা এলাকায় অনেক দিন ধরে চলছিলো টাকার বিনিময়ে বড়সড় জুয়া খেলার আসর। গোপন ভাবে ওই এলাকার একটি বাড়ির মধ্যে বসতো আসর। বাইরে থেকে কোন ভাবে বোঝার উপায় ছিলো না ভিতরে চলছে হাজার হাজার টাকার বিনিময়ে জুয়া খেলা।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে বর্ধমান থানার পুলিশ হানা দেয় বর্ধমান শহরের গোদা এলাকায় বানপাড়ার ওই বাড়িতে। তখন টাকার বিনিময়ে চলছিলো জুয়া খেলা। পুলিশ জুয়া খেলার অপরাধে হাতেনাতে ধরে ফেলে বাড়ির মালিক সহ ন জন জুয়ারিকে। তাদের গ্রেফতার করে বুধবার বর্ধমান আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, বেশ কয়েকদিন ধরে গোদার বানপাড়ায় জুয়ার আসর বসছে বলে খবর আসে। পুলিশের বিশেষ টিম তদন্তে নেমে জানতে পারে গোদা এলাকায় বানপাড়ার হাফিজুর রহমানের বাড়িতে বসছে জুয়ার ঠেক। খবর নিশ্চিত হতেই পুলিশ ওই বাড়িতে হানা দেয়। ঘটনাস্থল থেকে  ৯জনকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের কাছ থেকে বোর্ডমানি ৩২০০ টাকা সহ জুয়া খেলার জন্য ব্যবহার করা কিছু তাসের বান্ডিল উদ্ধার করা হয়েছে। শহরে আর কোথায় জুয়ার আসর চলছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেরা পুলিশ।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: