Home /News /south-bengal /

প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা! পূর্ব বর্ধমানের বাজারে ভিড় সামলাতে তৎপর পুলিশ

প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা! পূর্ব বর্ধমানের বাজারে ভিড় সামলাতে তৎপর পুলিশ

বাজারের ভিড়ে লাগাম টানতে তৎপরতা চালাচ্ছে পুলিশ প্রশাসন। নির্ধারিত সময়ের পরে দোকান বাজার বন্ধ রাখা নিশ্চিত করতে জেলার সদর শহর বর্ধমান সহ বিভিন্ন জনবহুল এলাকায় ধরপাকড় শুরু করেছে পুলিশ।

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা (Corona) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৫৪৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। লাগামহীনভাবে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন জেলার বাসিন্দারা। বাজারের ভিড়ে লাগাম টানতে তৎপরতা চালাচ্ছে পুলিশ প্রশাসন। নির্ধারিত সময়ের পরে দোকান বাজার বন্ধ রাখা নিশ্চিত করতে জেলার সদর শহর বর্ধমান সহ বিভিন্ন জনবহুল এলাকায় ধরপাকড় শুরু করেছে পুলিশ। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসিন্দারা যাতে অযথা বাইরে না থাকেন তা নিশ্চিত করতে মাইকে প্রচার চালানো হচ্ছে।

এ দিন পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় ২৩ হাজার ৭৬৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৬ হাজার ৯৫৯ জন ইতিমধ্যেই চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন। বর্তমানে এই জেলায় অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৬৫৯২ জন। এ দিন পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ২১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় নতুন করে আক্রান্ত ৫৪৭ জনের মধ্যে ১২৪ জন বর্ধমান পৌরসভা এলাকার বাসিন্দা। এছাড়াও দাঁইহাট পৌরসভা এলাকায় ৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গুসকরা পৌরসভা এলাকায় ২ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। কালনা পৌরসভা এলাকায় নতুন করে ১৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কাটোয়া পৌরসভা এলাকায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৯ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এছাড়াও আউসগ্রাম এক নম্বর ব্লকে ১২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আউশগ্রাম দু'নম্বর ব্লকে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ জন। ভাতার ব্লকে ৩১ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বর্ধমান এক নম্বর ব্লকের ৩৩ জন ও বর্ধমান দু'নম্বর ব্লকে ২৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গোলসি এক নম্বর ব্লকে ২৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। গলসি দু'নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন পনেরো জন। জামালপুর ব্লকের ১৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কালনা এক নম্বর ব্লকে ২১ জন ও কালনা দু নম্বর ব্লকে ১৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

Saradindu Ghosh

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Bardhaman, Corona, Covid ১৯

পরবর্তী খবর