• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Bangla News: বউকে না ফেরানোয় শাশুড়ির মাথায় মুগুরের আঘাত জামাইয়ের !

Bangla News: বউকে না ফেরানোয় শাশুড়ির মাথায় মুগুরের আঘাত জামাইয়ের !

Representative Image

Representative Image

জামাইকে ধরে পাড়া প্রতিবেশীরা এরপর গণধোলাই দেন।

  • Share this:

    হাওড়া: বৃহস্পতিবার কালীপুজোর (Diwali) দিন রাত প্রায় সাড়ে এগারোটা নাগাদ শাশুড়ির মাথা ফাটাল গুণধর জামাই। জামাইকে ধরে পাড়া প্রতিবেশীরা এরপর গণধোলাই দেন। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে দাসপুর থানার কুল্টিকরী নিমতলা পাত্র পাড়ায়।

    আরও পড়ুন- মাত্র ৫ হাজার টাকা বিনিয়োগেই খোলা যায় পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি; জেনে নিন বিশদে

    জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত নাগাদ নিজের স্ত্রী অঙ্কিতা বাগকে বাপের বাড়ি থেকে নিয়ে যেতে আসে পূর্ব মেদিনীপুরের বাহারজোলা কুলহান্ডার শিবপ্রসাদ। সেই সময় সে মদ্যপ অবস্থায় ছিল, শুরু হয় শ্বশুরবাড়ির লোকের সঙ্গে তুমুল বচসা, স্ত্রী শ্বশুরবাড়িতে ফিরে যেতে না চাওয়ায় হাতের সামনে থাকা একটি মুগুর দিয়ে শাশুড়ির মাথায় আঘাত করে জামাই।

    আরও পড়ুন- স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে আজ চাই বড় জয়, পঞ্চম বোলার নিয়ে সমস্যায় ভারত

    উল্লেখ্য অঙ্কিতার ১ বছর আগে এই দাসপুরের নিমতলার বাসিন্দা ধনঞ্জয় মন্ডল ও অঞ্জলি মন্ডলের বড় মেয়ে অঙ্কিতার সঙ্গে বিয়ে হয় পূর্ব মেদিনীপুরের শিবপ্রসাদের। স্ত্রী অঙ্কিতার অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকেরা বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার চালাত তাঁর উপর ৷ সেই কারণেই অঙ্কিতা দুই মাসের কন্যা সন্তানকে কোলে নিয়ে একমাস আগে বাপের বাড়িতে চলে আসেন ৷ কোনওভাবেই আর শ্বশুর বাড়িতে ফিরে যেতে রাজি হননি তিনি। আর সে কারণেই বরের এই কাণ্ড। অন্যদিকে জামাইয়ের এই কাণ্ডে পাড়া প্রতিবেশীরা পাড়ার জামাইকে বেঁধে গণধোলাই দেন। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দাসপুর থানার পুলিশ।

    এদিকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ে চোর সন্দেহে এক যুবককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল স্থানীয় কয়েকজন যুবকের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং থানার অন্তর্গত বাহিরবেনা এলাকায়। আক্রান্ত যুবকের নাম হাফিজুল লস্কর। তিনি বারুইপুর থানার উত্তর বেলেগাছি গ্রামের বাসিন্দা। আহত যুবক ও পরিবারের দাবি, রাতে ইটখোলা এলাকা থেকে কবাডি খেলা দেখে বাড়ি ফেরার পথে ওই যুবকরা রাস্তায় ধরে বেধড়ক মারধর করে হাফিজুলকে। লাঠি, রড দিয়ে মারধর করা হয়। শুক্রবার সকালে এ বিষয়ে ক্যানিং থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ ৷

    সুকান্ত চক্রবর্তী

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: