করোনার জেরে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে চাল, আলু বিতরনে গরমিল, বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

করোনার জেরে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে চাল, আলু বিতরনে গরমিল, বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের
  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: স্কুল বন্ধ থাকলেও চালু থাকবে মিড ডে মিল। ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। লকডাউনের আগে, আজ স্কুলে স্কুলে মিড ডে মিল বিলি করল রাজ্য সরকার। অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়া হল ২ কেজি করে চাল ও আলু। করোনা ঠেকাতে আগেই স্কুলগুলিতে ছুটি ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। কিন্তু পড়ুয়াদের জন্য মিড ডে মিল বন্ধ হচ্ছে না। লকডাউনের আগে স্কুলে স্কুলে মিড ডে মিল বিলি করল রাজ্য সরকার। সোমবার সকাল থেকেই কলকাতা ও জেলার বিভিন্ন স্কুলে খাবার বিলি হয়। পড়ুয়াদের জন্য চাল-আলু সংগ্রহ করতে ভিড় জমে যায় অভিভাবকদের। এদিন সকালে সাগরদিঘির সিহারা শিশু বিকাশ অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ছড়াল উত্তেজনা । অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য চাল ও আলু দেয়ার কথা অভিভাবকদের। কিন্তু যে পরিমাণে দেয়ার কথা সেই পরিমাণের থেকে কম দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ দেখায় গ্রামবাসীরা। আর এতে উত্তেজনা ছড়ায় ওই শিশু বিকাশ কেন্দ্রে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অভিভাবক জহিরউদ্দিন শেখ বলেন, কম দেয়ার ব্যাপারে প্রতিবাদ করলে ওই অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী বাজে ব্যবহার করেন আমাদের সঙ্গে। প্রতিবাদ করার পর নিজের ভুল স্বীকার করেন। আমরা সমস্ত ঘটনা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি । যদিও অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী রাশিদা বিবি বলেন, চালের বস্তায় যে পরিমাণ চাল দেওয়ার কথা তার দেওয়া হয় না। সেই কারণেই আমরা কিছুটা করে কম চাল দিয়েছি। আলু প্রত্যেককে ২০০ গ্রাম করে কম দেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে গ্রামবাসীরা ভুল বুঝেছিলেন। তবে আর ভুল হবেনা। রাজ্যের মন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, এই জিনিস মানা হবে না। গরিব ছাত্র ছাত্রীরা যাতে ঠিকমত জিনিস পাই সেই জন্য সরকারি আধিকারিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Pranab Kumar Banerjee

First published: March 23, 2020, 8:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर