Madan Mitra: পকেটে কী? বাহিনীর সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে 'দাদার' চিরচেনা জবাব, 'আই অ্যাম মদন মিত্র'!

Madan Mitra: পকেটে কী? বাহিনীর সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে 'দাদার' চিরচেনা জবাব, 'আই অ্যাম মদন মিত্র'!

পকেটে কী? বাহিনীর সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে 'দাদার' চিরচেনা জবাব, 'আই অ্যাম মদন মিত্র'!

অভিযোগ, ইভিএমে গন্ডগোল হওয়ায় ভোট শান্তিতে শুরু করতে পারা যাচ্ছিল না। প্রায় দু'ঘণ্টা ধরে ইভিএম খারাপ থাকার ফলে অনেকেই ভোট দিতে পারছেন না বলে জানতে পারেন মদন মিত্র।

  • Share this:

    #আড়িয়াদহ: শনিবার বাংলার বিধানসভা (West Bengal Election 2021) ভোটের পঞ্চম দফার (5th Phase) ভোট। সকাল সকাল শুরু হয়ে গিয়েছে ভোটগ্রহণও। এই পরিস্থিতিতে কামারহাটির তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মদন মিত্রকে (Madan Mitra) অত্যন্ত বিরক্তিতে দেখা গেল। কিন্তু কেন? কারণ সকাল সকাল, কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে বচসায় জড়িয়েছেন তিনি।

    ঠিক কী কারণে এই অশান্তি?

    উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটি বিধানসভার আড়িয়াদহ হাইস্কুলে সকাল থেকেই চাপা উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। অভিযোগ, ইভিএমে গন্ডগোল হওয়ায় ভোট শান্তিতে শুরু করতে পারা যাচ্ছিল না। প্রায় দু'ঘণ্টা ধরে ইভিএম খারাপ থাকার ফলে অনেকেই ভোট দিতে পারছেন না বলে জানতে পারেন মদন মিত্র। খবর পেয়ে নিজেই গাড়ি চালিয়ে ১৬৫ ও ১৬৬ নম্বর বুথে যান কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। অভিযোগ, সেখানে ঢোকার কেন্দ্রীয় বাহিনী তাঁকে বুথে ঢুকতে বাধা দেয়। একজন অফিসার মদন মিত্রের গায়ে হাত দিয়ে তল্লাশি শুরু করেন। আরেকজন পকেটে কী রয়েছে প্রশ্ন করে জামার পকেটে হাত দেন।

    তখনই পকেট থেকে দুর্গা, কালী ঠাকুরের ছবি বের করে দেখান মদন মিত্র। এবং চিরচেনা ভঙ্গিতে জবাব দেন, 'এভাবে গায়ে হাত দিতে পারেন না আপনারা। আমি এখানকার প্রার্থী, আমি মদন মিত্র।' এই গোটা ঘটনায় স্বাভাবিক ভাবেই উত্তেজনা তৈরি হয়। পরে যদিও ইভিএম বদলে অন্য ইভিএম আনা হয় ওই বুথে। মদন মিত্রের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বাধার জন্য বুথে ঢুকতে পারেননি তিনি।

    ঘটনার জেরে উত্তেদিত তৃণমূল নেতা প্রিসাইডিং অফিসার এবং নির্বাচনে কমিশনে মেল করে অভিযোগ জানাবেন বলে দাবি করেছেন।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: