এখনও নেভেনি আগুন, সোদপুরে কারখানা ভাঙার সিদ্ধান্ত দমকলের, খোঁজ চার ব্যক্তির

এখনও দাউদাউ করে জ্বলছে বহুতলের বেশ কিছু অংশ।

সকাল থেকেই নিখোঁজ যে ব্যক্তিদের কথা বলা হচ্ছিল, তাঁদের তিনজনের পরিচয়ও জানা গিয়েছে।

  • Share this:

    #সোদপুর: প্রায় ১২ ঘণ্টা হয়ে গেলেও আগুন নেভেনি। অগত্য সোদপুরের বিলকান্দা খাসতালুকের গেঞ্জি কারখানা বাইরে থেকে ভাঙার সিদ্ধান্ত নিল দমকল বাহিনী। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ঘটনাস্থলে জেসিপি নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সকাল থেকে বাইরে থেকে রোবট দিয়ে জল ছুঁড়ে দমকলের ১৫ টি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। তারপরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সকাল থেকেই নিখোঁজ যে ব্যক্তিদের কথা বলা হচ্ছিল, তাঁদের তিনজনের পরিচয়ও জানা গিয়েছে। ওই তিন ব্যক্তি অমিত সেন, স্বরূপ ঘোষ, তন্ময় ঘোষের সঙ্গে যদিও এখনও যোগাযোগ করা যায়নি।

    বুধবার রাত দুটো তিরিশ মিনিটে পরপর কয়েকটি গ্যাসের সিলিন্ডারে বিস্ফোরণের ফলে আগুন লাগে। ওই একই কারখানায় ওষুধ, রঙ ও অন্যান্য় দাহ্যবস্তু থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা মুশকিল হয়ে দাঁড়ায়। ঘটনাস্থলে ১৫ টি দমকলের ইঞ্জিন পৌঁছলেও, বিল্ডিংটি পুরনো হওয়ায় ভিতরে ঢুকতেই পারছিলেন না দমকল। ফলে পকেট ফায়ারগুলি নে‌ভানো কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। গোটা এলাকা ধোঁয়ায় ভরে যায়।

    এর পরেই সিদ্ধান্ত হয় জেসিপি এনে বাড়ি ভাঙা হবে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত এক দমকল আধিকারিকের কথায়, এই ঘিঞ্জি এলাকায় ফায়ার ফাইটিং ম্যানুয়ালি করা যায় না। তাই মেকানিক্যাল ফায়ার ফাইটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। আপাতত ঘটনাস্থলে আটকে থাকা ওই চার ব্যক্তিকে উদ্ধার করাই দমকলের চ্যালেঞ্জ।

    Published by:Arka Deb
    First published: