হোম /খবর /পুরুলিয়া /
রাজ্যের প্রথম পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্র আগের জায়গায় ফিরুক, দাবি আদিবাসীদের

Purulia News: রাজ্যের প্রথম পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্র আগের জায়গায় ফিরিয়ে আনার দাবিতে সরব আদিবাসীরা

X
title=

সন্তানদের নিয়ে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বর্তমান পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রে যেতে হচ্ছে। এদিকে নিয়মিত আয় না হওয়ায় এতটা দূর সন্তানদের নিয়ে যাওয়াটাও অসুবিধা তৈরি করছে।

  • Hyperlocal
  • Last Updated :
  • Share this:

পুরুলিয়া: পাইলট প্রজেক্টের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গে প্রথম পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্র তৈরি হয় বেগুনকোদায়। ২০১০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এটি তৈরি হয়েছিল। তারপর থেকে এই প্রান্তিক এলাকার হাজার হাজার অপুষ্টিতে ভুগতে থাকা শিশু এখানে এসে সুস্থ হয়েছে। কিন্তু দীর্ঘদিন যাবত সংস্কারের অভাবে বেহাল অবস্থায় পড়েছিল বেগুনকোদরের এই পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রটি। বারংবার প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা সত্ত্বেও তা সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ। পরবর্তীতে বেগুনকোদর পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রটি স্থানান্তরিত করা হয় কোটশিলাতে। এর ফলের চরম সমস্যায় পড়েন স্থানীয়রা। তাই তাঁরা আবার পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রটি পুরনো জায়গায় ফেরানোর দাবি তুললেন।

বেগুনকোদরের মানুষের অভিযোগ, এখানে বেশিরভাগ দরিদ্র মানুষের বসবাস। করোনা পর্যায়ের পর থেকেই আর্থিক অনটন আর‌ও বেড়েছে। এই পরিস্থিতিতে তাঁরা সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন, সন্তানদের ঠিক করে খেতে দিতেও পারছেন না। এই পরিস্থিতিতে সন্তানদের নিয়ে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বর্তমান পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রে যেতে হচ্ছে। এদিকে নিয়মিত আয় না হওয়ায় এতটা দূর সন্তানদের নিয়ে যাওয়াটাও অসুবিধা তৈরি করছে। এছাড়াও দূরত্ব একটা বড় বিষয়।

আরও পড়ুন: পড়ুয়ারা আসে না, স্কুলটাই তুলে দেওয়ার দাবি 'হতাশ' শিক্ষিকার

এই পরিস্থিতিতে ফের পুরনো জায়গায় পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্র ফিরিয়ে আনার দাবিতে সরব বেগুনকোদরের মানুষ। এখন প্রশ্ন হল, আদিবাসী অধ্যুষিত এই এলাকার দরিদ্র মানুষদের সমস্যার সমাধান কবে হবে? স্থানীয়রা প্রশাসনের দিকে তাকিয়ে অপেক্ষা করছেন।

শর্মিষ্ঠা ব্যানার্জি

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Purulia news