Home /News /purba-bardhaman /
East Bardhaman News: অ্যাপ নয়, ব্যাবসায়ী নিজেই বাড়ি বাড়ি ঘুরে বিক্রি করেন মিষ্টি

East Bardhaman News: অ্যাপ নয়, ব্যাবসায়ী নিজেই বাড়ি বাড়ি ঘুরে বিক্রি করেন মিষ্টি

title=

কষ্ট করলে যে কেষ্ট মেলে তা আবারও প্রমাণ করল পাড়ুই গ্রামের সঞ্জয়। কীভাবে তিনি গোয়ালা থেকে হলেন মিষ্টি ব্যাবসায়ী জানুন তাঁর কাহিনী।  

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান: লোক জনকে মিষ্টি মুখ করানোই শুধু নয়। আস পাশে থাকে পরিচিত মানুষ গুলো যাতে তাঁদের প্রিয়জনদের মুখে বিশেষ দিনে মিষ্টি তুলে দিতে পারেন তারও ব্যাবস্হা করে যাচ্ছেন পূর্ব বর্ধমান জেলার পাড়ুই গ্রামের ঘোষ পাড়ার সঞ্জয় বাবু। আপাত সাধারণ একটি ব্যক্তি কিন্তু তাঁর কর্মকাণ্ডের চিন্তা ধারা সুবিশাল। লোক বল হয়তো সে ভাবে নেই, নেই তেমন পুঁজিও। তবুও নিজ উদ্যোগে তিনি চালিয়ে যাচ্ছেন রুজি রুটি। ব্যাবস্হা করে যাচ্ছেন আস পাশের চেনা কয়েকজনেরও।

    পাড়ুই গ্রামের ঘোষ পাড়ার বাসিন্দা সঞ্জয় ঘোষ। উনি মিষ্টি শিল্পী, মিষ্টি কারিগর আর এই সঞ্জয় বাবুর হাতের তৈরি মিষ্টি বিক্রির পন্থা অভিনব। যদিও একবিংশ শতকে বিভিন্ন অ্যাপ নির্ভর সংস্থার মাধ্যমেই দরজার কাছে পৌঁছে যায় খাবার। কিন্তু এক্ষেত্রে অর্ডার নেওয়া দেওয়ার মাধ্যমও সঞ্জয় বাবু আবার ডেলিভারি বয় ও সঞ্জয় বাবু। সঙ্গে অবশ্যই তিনি মিষ্টির কারিগরও। এমনই এক "অসামান্য" সামান্য ব্যক্তির কাহিনী নিয়েই আজকের এই প্রতিবেদন।

    আরও পড়ুন - বেহাল রাস্তা মেরামতের দাবিতে বিক্ষোভ

    আরও পড়ুন - বর্ধমানের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক ছিল, কলেজ অনুষ্ঠান-কাঞ্চন উৎসব মাতিয়েছিলেন কেকে

    স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন পাড়ুই গ্রামের ঘোষ পাড়ার সঞ্জয় ঘোষ। তবে আর্থিকভাবে সচ্ছল না হওয়ায় পড়াশোনার পাশাপাশি তাকে শুরু করতে হয় মিষ্টি বিক্রি। নিজের বাড়ির গরুর দুধ দিয়েই প্রথমে শুরু করেন পনির। বর্ধমান শহরের অলিগলি ঘুরে বাসিন্দাদের দরজায় দরজায় পৌঁছে দেন নিজের তৈরি পনির। তখন থেকেই শুরু হয় মিষ্টি কারিগর সঞ্জয়ের পথ চলা। এরপর নানা রকম মিষ্টি তৈরি করতে থাকেন তিনি। যার সমস্তটাই তৈরি হয় নিজের বাড়ির পোষ্য গরুর দুধ থেকেই। আর সেই সব তৈরি মিষ্টি নিজেই বিক্রি করতে থাকেন ঘুরে ঘুরে।

    দীর্ঘ কুড়ি বছর ধরে সঞ্জয় বাবু চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁর মিষ্টির ব্যাবসা। যেহেতু সময় গড়িয়েছে তাই ব্যবসার বহরও বেড়েছে। ফলে এখন তিনি আর একা নন আশপাশের মানুষজনও হাতে হাত লাগিয়ে কাজ করছেন সঞ্জয় বাবুর সঙ্গে। কিন্তু মিষ্টি ডেলিভারি করতে যাওয়াটা নিজের হাতেই সামলান সঞ্জয় ঘোষ।

    Malobika Biswas

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Bardhwan news, East Bardhaman

    পরবর্তী খবর