Home /News /purba-bardhaman /
East Bardhaman News: বর্ষা এলেও দেখা নেই বৃষ্টির! গ্রামে দেবরাজ ইন্দ্রের পুজো করে বৃষ্টিকে ডাক!

East Bardhaman News: বর্ষা এলেও দেখা নেই বৃষ্টির! গ্রামে দেবরাজ ইন্দ্রের পুজো করে বৃষ্টিকে ডাক!

East Bardhaman News: বৃষ্টির আশায় গ্রামে দেবরাজ ইন্দ্রের পুজো। এক অনন্য পুজোর সাক্ষী থাকল গ্রামবাসীরা। 

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান: বৃষ্টির আশায় গ্রামে দেবরাজ ইন্দ্রের পুজো। এক অনন্য পুজোর সাক্ষী থাকলেন গ্রামবাসীরা। কয়েকদিন ধরেই আকাশ পানে চেয়ে চাষিরা। বৃষ্টির অভাবে অনেকটাই পিছিয়ে গেছে আমন ধানের চাষ। বৃষ্টির অভাব পূরণের জন্য করা হল ইন্দ্রের পুজো। বৃষ্টির জন্য পুজো হল দেবরাজ ইন্দ্রের।

    জানা গিয়েছে, বহু বছর পূর্বে এই গ্রামের লোকজন চাষীদের প্রয়োজনে বৃষ্টির প্রার্থনায় এই পুজোটি শুরু করেন। পুজোটি পরবর্তী সময়ে সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়ে যায়। ফের ১৪১০ সালে স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তির উদ্যোগে পুজোটি শুরু হয়। এদিন এই পুজোতে কৃষক সম্প্রদায়ের সমস্ত মানুষ হাজির হন এবং ভক্তি ভরে পুজো দেন বৃষ্টির আশায়। এই পুজো অনুষ্ঠানের দেশ বোয়াইচন্ডি গ্রামের তিনজন কৃতি ছাত্র-ছাত্রীকে সংবর্ধনা জ্ঞাপন করা হয়। কৃতিদের মধ্যে ২০২১ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষায় পাশ করে বর্তমানে বাঁকুড়া মেডিকেল কলেজে এম বি বি এস পাঠরত সুশান্তিকা কাড়ি, ২০২১ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষায় পাশ করে বহরমপুর মেডিকেল কলেজে এম বি বি এস পাঠরত সহেনি দত্ত এবং বিভিন্ন মৃত জীবজন্ত নিয়ে গবেষণা করে বিশ্বে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ওয়ারল্ড রেকর্ড করে খ্যাতি অর্জন করা তরুণ পাল-কে।

    এদিন পুজো কমিটির সদস্যরা জানান, এই দেবরাজ ইন্দ্রের পুজো প্রায় ৫০ বছর ধরে হয়ে আসছে। মূলত বৃষ্টির প্রার্থনা করেই এই পুজো হয়। পুজো কমিটির সদস্য সমীর নন্দী জানান, দীর্ঘদিন ধরে বৃষ্টির দেখা নেই। চাষীরা চাতক পাখির মতো আকাশের দিকে তাকিয়ে বৃষ্টির আসায়। তবে বৃষ্টির দেখা নেই। তাই ইন্দ্রের পুজো দেওয়া হল। এখন কবে যে বৃষ্টি হয় সেটাই দেখার।

    উল্লেখ্য, চলতি বছরে বৃষ্টির দেখা নেই। জুলাই মাস পেরিয়ে গেলেও বৃষ্টির দেখা নেই পূর্ব বর্ধমান জেলায়। ফলে চাষের সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও কৃষকরা চাষবাস শুরু করতে পারেননি। মাথায় হাত পড়েছে কৃষকদের। তবে এরইমধ্যে জল ছেড়েছে ডিভিসি। ভাতার মঙ্গলকোট ব্লকে ডিভিসি সেচকালের জল ঢুকেছে। তবে বৃষ্টির জলের আসায় এখনও বসে কৃষকরা।

    Malobika Biswas

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Bardhaman, Bardhaman news

    পরবর্তী খবর