Home /News /purba-bardhaman /
Purba Bardhaman: সিধু কানু পার্ক ভরেছে আবর্জনায়, বেড়েছে দুষ্কৃতী দৌরাত্ব্য!

Purba Bardhaman: সিধু কানু পার্ক ভরেছে আবর্জনায়, বেড়েছে দুষ্কৃতী দৌরাত্ব্য!

title=

বর্ধমান শহরের প্রাণকেন্দ্র কার্জন গেটের খুব কাছেই রয়েছে একটি পার্ক যার নাম সিধু কানু পার্ক। এই পার্কে নানান রকম অনুষ্ঠান কর্মসূচি হয়ে থাকে।

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান : বর্ধমান শহরের প্রাণকেন্দ্র কার্জন গেটের খুব কাছেই রয়েছে একটি পার্ক যার নাম সিধু কানু পার্ক। এই পার্কে নানান রকম অনুষ্ঠান কর্মসূচি হয়ে থাকে। এই পার্কের এক পাশে সংস্কৃতি লোকো মঞ্চ আরেক পাশে রয়েছে জেলা পরিষদের দপ্তর। অন্যদিকে পাশেই রয়েছে বর্ধমানের একটি বড় হকার মার্কেট কিন্তু সবকিছুর মধ্যে এই পার্কটি অবহেলায়। অযত্নে পার্কে জন্মেছে আগাছা।এই পার্কের পাশের বেশ কয়েকটি খাবারের দোকান ও ফলের দোকান রয়েছে। সেই সব দোকানের যত উচ্ছিষ্ট আবর্জনা সবই পার্কে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কারও সেদিকে নজর নেই। কোনও হেলদোল নেই প্রশাসনিক মহলের। শুধু তাই নয়, এই পার্কে দেখা যাচ্ছে বেশ কিছু প্লাস্টিক গ্লাস, প্লাস্টিক বস্তা, পচা শালপাতা পড়ে রয়েছে।

    স্থানীয়রা বলেন, এভাবে পার্কটিকে আবর্জনায় না ভরিয়ে পার্কটিকে সুন্দর করে সাজিয়ে গুছিয়ে, বাচ্চাদের খেলার ধুলোর জন্য এবং বড়দের সময় কাটানোর জন্য সংস্কার করা হোক। এবিষয়ে প্রশাসনের নজর দেওয়া উচিত।

    আরও পড়ুনঃ যন্ত্রচালিতের যুগে আজও তাঁতিদের কাছে গুরুত্ব পায় হস্তচালিত তাঁত

    স্থানীয় উত্তম কোলে সন্তোষ দাসেরা বলেন, পার্কটি নোংরা আবর্জনায় ভরা। আগাছায় ভরে গেছে। ছোটো ছেলেমেয়েরা খেলতে আসতে পারে না এখানে। এছাড়াও বয়স্করা কিছুটা সময় কাটাবে তার উপায় নেই। সন্ধ্যে হলেই অসামাজিক কাজ কর্ম হয় এই পার্কেই। প্রশাসনের নজর দেওয়া উচিত। পার্কটি পরিষ্কার করার ব্যবস্থা করা দরকার।

    আরও পড়ুনঃ বর্ধমানের জোতরাম বিদ্যাপীঠে কন্যাশ্রী ক্লাবের উদ্বোধন

    এই পার্কটি PWD-র আওতায় রয়েছে। পার্কটি পরিষ্কার করা হয়। তবে কেন নোংরা হচ্ছে তা দেখা হবে। আর যাতে আবর্জনায় ভরে না থাকে সিধু কানু পার্ক সেদিকেও নজর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা পরিষদের সহ-সভাপতি দেবু টুডু।

    Malobika Biswas
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Purba bardhaman

    পরবর্তী খবর