• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • আদিবাসী মহিলাকে নগ্ন করে মারধর-ঘোরানো হল গ্রাম, ডিজি এবং আলিপুরদুয়ারের পুলিশ সুপারকে চিঠি জাতীয় মহিলা কমিশনের

আদিবাসী মহিলাকে নগ্ন করে মারধর-ঘোরানো হল গ্রাম, ডিজি এবং আলিপুরদুয়ারের পুলিশ সুপারকে চিঠি জাতীয় মহিলা কমিশনের

Alipurduar: রাজ্য পুলিশের ডিজিকে অবিলম্বে অভিযুক্তদের প্রত্যেককে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছে কমিশন

Alipurduar: রাজ্য পুলিশের ডিজিকে অবিলম্বে অভিযুক্তদের প্রত্যেককে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছে কমিশন

Alipurduar: রাজ্য পুলিশের ডিজিকে অবিলম্বে অভিযুক্তদের প্রত্যেককে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছে কমিশন

  • Share this:

#আলিপুরদুয়ার: মঙ্গলবার জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র এবং আলিপুরদুয়ারের পুলিশ সুপারকে চিঠি পাঠিয়েছেন। পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আগামীকাল, বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার সময় ভার্চুয়ালি উপস্থিত হয়ে যাবতীয় তথ্য দিতে হবে কমিশনকে। একদিকে রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা নিয়ে জাতীয় রাজনীতিতে শোরগোল চলছে। অন্যদিকে আলিপুরদুয়ারের একজন আদিবাসী মহিলাকে বিবস্ত্র করে সারা গ্রাম ঘুরিয়ে নির্মম অত্যাচার করার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে সেই খবর। যা দেখে কার্যত নড়েচড়ে বসেছে জাতীয় মহিলা কমিশন।

উল্লেখ্য, মধ্যযুগীয় বর্বরতা আলিপুরদুয়ারে! বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন এক আদিবাসী মহিলা। সবক শেখাতে সালিশি সভা বসিয়ে সকলের সামনে তাঁকে  নগ্ন করে ব্যাপক মারধর করা হয়। এমনকি গোটা ঘটনা ক্যামারাবন্দী করে রাখেন অনেকেই। নির্মম অত্যাচারের লজ্জাজনক সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ইতিমধ্যেই সেই ভিডিও ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে তিন অভিযুক্তকে।আলিপুরদুয়ারের কুমারগ্রাম থানার পশ্চিম চেংমারী এলাকায় ঘটনাটি ঘটে গত বুধবার। তারপর থেকে নিখোঁজ ওই মহিলা। ঘটনায় এলাকারই বেশ কয়েকজন জড়িত বলে স্থানীয়দের একাংশের অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, মাস ছ'য়েক আগে ওই মহিলা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তাঁকে বিয়ে করে স্বামীর ঘরও ছাড়েন। কিন্তু, পরবর্তীতে যাকে তিনি বিয়ে করে তিনি স্বামীকে ছেড়েছিলেন, সেই ব্যক্তিই তাঁকে ত্যাগ করে। ঘটনার কথা জানতে পারেন তাঁর স্বামীও। এরপর নিজেদের মধ্যে কথা বলে বৃহস্পতিবার স্ত্রীকে পশ্চিম চেংমারীর বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। অভিযোগ, ঘটনাটি স্বামী-স্ত্রীর মেনে নিলেও এলাকার মাতব্বরেরা মেনে নেননি। এমনকি সালিশি বসিয়ে বিচার শুরু করেন বৃহস্পতিবার।

ঘটনার পর ওই মহিলাকে উদ্ধার করে কামাখ্যাগুড়ি ফাঁড়ির পুলিশ। নির্যাতিত আদিবাসী মহিলার স্বামী মঙরা কুজুর জানান, দোষীদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। তাঁর স্ত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিগৃহীতা তাঁর বয়ানে ১১ জনের নাম জানিয়েছেন।স্থানীয়রাই জানিয়েছেন,  রাতে ওই মহিলাকে ঘর থেকে টেনে বের করে নগ্ন করে মারধর করা হয় এবং মোবাইলেও তুলে রাখে ওই ন্যাক্কারজনক ঘটনা। এ দিকে, রবিবার লজ্জাজনক ঘটনাটির ভিডিও এলাকায় ছড়িয়ে যায়। তাতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। ঘটনার কথা জানাজানি হয়। নিন্দার ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়াতেও।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: