• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • আদিবাসী সংগঠনের রেল ও রাস্তা অবরোধের জেরে বিপর্যস্ত উত্তরবঙ্গের যোগাযোগ, পরীক্ষা দিতে পারলেন না কয়েক হাজার PSC পরীক্ষার্থী

আদিবাসী সংগঠনের রেল ও রাস্তা অবরোধের জেরে বিপর্যস্ত উত্তরবঙ্গের যোগাযোগ, পরীক্ষা দিতে পারলেন না কয়েক হাজার PSC পরীক্ষার্থী

 মালদহ ও দুই দিনাজপুর জেলার কয়েক হাজার শিক্ষিত যুবক যুবতী সরকারি চাকরির পরীক্ষা দিতে পারেনি ৷

মালদহ ও দুই দিনাজপুর জেলার কয়েক হাজার শিক্ষিত যুবক যুবতী সরকারি চাকরির পরীক্ষা দিতে পারেনি ৷

মালদহ ও দুই দিনাজপুর জেলার কয়েক হাজার শিক্ষিত যুবক যুবতী সরকারি চাকরির পরীক্ষা দিতে পারেনি ৷

  • Share this:

#মালদহ: সারনা ধর্মের স্বীকৃতির দাবিতে আদিবাসী সংগঠনের রেল ও রাস্তা অবরোধ কর্মসূচিতে রবিবার কার্যত বিপর্যস্ত উত্তরবঙ্গের যোগাযোগ। সকাল থেকে মালদার আদিনা স্টেশনে রেলপথ অবরোধ করে আদিবাসী সিঙ্গেল অভিযান এবং ঝাড়খন্ড দিশম পার্টি। বেলার দিকে গাজলের ছিটকামহল এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কও শুরু হয় অবরোধ।

অবরোধের জেরে মালদা থেকে শিলিগুড়ি যাওয়ার পথে বিভিন্ন স্টেশনে দাঁড়িয়ে পড়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ট্রেন। একইভাবে সড়ক পথে আটকে যায় বহু দূরপাল্লার বাস এবং অন্যান্য যানবাহন। অবরোধ কর্মসূচিতে সবচেয়ে বিপাকে পড়েন পিএসসির চাকরিপ্রার্থীরা।

রবিবার সকাল ১১টা থেকে শিলিগুড়িতে উত্তরবঙ্গের চাকরিপ্রার্থীদের পিএসসি পরীক্ষার কথা ছিল। কিন্তু ঘণ্টার পর ঘণ্টা ট্রেনেই আটকে থাকেন পরীক্ষার্থীরা। ফলে মালদহ ও দুই দিনাজপুর জেলার কয়েক হাজার শিক্ষিত যুবক যুবতী সরকারি চাকরির পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ নিতে পারেননি। এনিয়ে চাকরি প্রার্থীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

বিহারের আজম নগর রোড স্টেশনে পাল্টা বিক্ষোভ শুরু করেন পিএসসি পরীক্ষার্থীরা। দেরিতে হলেও পরীক্ষার সুযোগ পাওয়ার অথবা পরীক্ষার দিনবদলের দাবি তুলে পরীক্ষার্থীরা। এর ফলে অবরোধ উঠে যাওয়ার পরও বেশ কিছুক্ষণ ট্রেন চালু করতে বিলম্ব হয়।এর আগে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী রবিবার কার্যত ভোর থেকেই আন্দোলনের নামে আদিবাসী সংগঠন গুলি।

মালদহের আদিনার পাশাপাশি উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলাতে বড় ধরনের জমায়েত করে ও রাস্তা অবরোধ কর্মসূচি শুরু হয়।এর ফলে মালদা আটকে পড়ে মালবাহী ট্রেন, বিহারের খুরিয়াল স্টেশনে আটকে পড়ে পদাতিক এক্সপ্রেস, আজমনগর রোড স্টেশনে আটকে পড়ে দার্জিলিং মেল এর মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ট্রেন। এই দুটি ট্রেনেই মালদহ ও দুই দিনাজপুর জেলার প্রচুর সংখ্যক পিএসসি পরীক্ষার্থী শিলিগুড়িতে চাকরির পরীক্ষার জন্য যাচ্ছিলেন। তাঁরা দীর্ঘ কয়েক ঘণ্টা বিভিন্ন স্টেশনে ট্রেনেই আটকে থাকেন।

বেলা সাড়ে ১১টার পর বিভিন্ন স্টেশন এবং গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা থেকে অবরোধ তুলে নেওয়ার কথা ঘোষণা করেন আন্দোলনকারীরা। তবে রেল ও সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হতে দুপুর গড়িয়ে যায়। আন্দোলনকারী সংগঠনের নেতা মোহন হাঁসদা বলেন, আদিবাসীদের পৃথক সারনা ধর্ম রয়েছে। কিন্তু এতদিন দাবি জানালেও কেন্দ্রীয় সরকারে এনিয়ে পদক্ষেপ করেনি। আগামী ২০২১ জনগণনাতে আলাদা সারনা ধর্মের কলম ও কোড  রাখার দাবি করা হয়েছে। দাবি পূরণ না হলে ভবিষ্যতে ফের বৃহত্তর আন্দোলন হবে।

Sebak Deb Sarma

Published by:Elina Datta
First published: