• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • ঢাক বাজিয়ে বর্ণাঢ্য বঙ্গধ্বনি যাত্রা মালদহে, দলত্যাগীদের বেইমান বললেন মৌসম

ঢাক বাজিয়ে বর্ণাঢ্য বঙ্গধ্বনি যাত্রা মালদহে, দলত্যাগীদের বেইমান বললেন মৌসম

নেতৃত্বে ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ ও দলের জেলা সভাপতি মৌসম বেনজির নূর। কর্মসূচির মধ্যেই দলত্যাগীদের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের মুখে পড়েন তিনি ।

নেতৃত্বে ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ ও দলের জেলা সভাপতি মৌসম বেনজির নূর। কর্মসূচির মধ্যেই দলত্যাগীদের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের মুখে পড়েন তিনি ।

নেতৃত্বে ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ ও দলের জেলা সভাপতি মৌসম বেনজির নূর। কর্মসূচির মধ্যেই দলত্যাগীদের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের মুখে পড়েন তিনি ।

  • Share this:

Sebak DebSarma

#মালদহ: পুরাতন মালদহে বর্ণাঢ্য বঙ্গধ্বনি যাত্রা তৃণমূলের। ঢাকির দলকে সামনে রেখে বর্ণাঢ্য প্রচার কর্মসূচিতে হাঁটলেন প্রচুর তৃণমূল কর্মী। চোখে পড়ার মতো উপস্থিতি ছিল মহিলাদের। নেতৃত্বে ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ ও দলের জেলা সভাপতি মৌসম বেনজির নূর। সোমবার দুপুরে পুরাতন মালদহ শহরে তৃণমূলের উদ্যোগে বঙ্গধ্বনি যাত্রার কর্মসূচি নেওয়া হয়। কর্মসূচির মধ্যেই দলত্যাগীদের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের মুখে পড়েন মৌসম নূর। তিনি বলেন, 'কিছু বেইমান দল থেকে যেতে পারেন। কিন্তু, আমাদের কর্মীরা শক্তিশালীভাবে নেত্রীর পাশেই রয়েছি। প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের কিছু লোক থাকেন, যাঁরা দলে থেকে দলের ক্ষতি করার চেষ্টা করেন। তাঁদেরকে আমরা বলব, দুই নৌকায় পা না রেখে এক নৌকো বেছে নিন'।

মৌসম এ দিন আরও বলেন, মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্য সরকার সাধারণ মানুষের জন্য প্রচুর উন্নয়নের কাজ করছেন। দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতেও ব্যাপক সাড়া মিলেছে। সাধারণ মানুষ সরকারি সুবিধা নিচ্ছেন। এ দিন পুরাতন মালদহে রীতিমতো ঢাক বাজিয়ে বঙ্গধ্বনি যাত্রার আয়োজন করে তৃণমূল। পুরাতন মালদহ পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে ঘরে ঘরে গিয়ে সাধারণ মানুষের কাছে তৃণমূল সরকারের রিপোর্ট কার্ড তুলে দেন মৌসম নূর সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। প্রচুর মানুষ এই কর্মসূচিতে অংশ নেন।

যদিও তৃণমূলের এই কর্মসূচিকে কটাক্ষ করেছে বিজেপি। জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল দাবি করেন, তৃণমূলের কর্মসূচিতে সাড়া দিচ্ছেন না সাধারণ মানুষ। তাই লোক জমা করতে নিয়ে ঢাক বাজানো হচ্ছে। এ ভাবে ঢাক বাজিয়েও মানুষের সিদ্ধান্তকে পরিবর্তন করা যাবে না। কারণ রাজ্যের মানুষ ইতিমধ্যেই তৃণমূলকে ক্ষমতা থেকে সরানোর জন্য মনস্থির করে ফেলেছেন। ভোটের ফলেই তৃণমূল টের পাবে। এ দিন বিভিন্ন এলাকায় রাস্তার দু’ধারে মানুষ ভিড় করেন এই শোভাযাত্রা দেখতে। বিলি করা রিপোর্ট কার্ড হাতে নিয়েও খতিয়ে দেখেন অনেকে। সরকারি পরিষেবায় আরও স্বচ্ছতা আনার পরামর্শ দিতে দেখা যায় অনেককে। বঙ্গধ্বনি যাত্রার কর্মসূচিতে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে পাওয়া পরামর্শ কাজে লাগানো হবে বলে জানান নেতৃত্ব।

Published by:Simli Raha
First published: