উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘ভোটকৌশলী PK এখন তৃণমূলের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের কাজ করছেন,’ কটাক্ষ বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের

‘ভোটকৌশলী PK এখন তৃণমূলের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের কাজ করছেন,’ কটাক্ষ বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের
Photo-File

‘তৃণমূল কংগ্রেস এখন পাগল কুকুরের মতো হয়ে গিয়েছে, কেবল হিংসা দিয়ে খুন করে বিজেপিকে আটকাবার চেষ্টা করছেন যা অসম্ভব। এই ডিসেম্বরের পর থেকে উল্টো মার শুরু হবে’। হুঁশিয়ারি দিলীপ ঘোষের

  • Share this:

#করণদীঘি: " পিকে এখন তৃণমূল কংগ্রেসের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের কাজ করছেন, তৃণমূল আমফান বা ঝড়ে কোনও ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট করেনি ৷ এখন নিজেদের ঘর সামলাতে প্রশান্ত কিশোরকে দিয়ে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট করার চেষ্টা করছে। যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের ঘরের খুঁটি নড়ে গিয়েছে সেটা আর ঠিক করা সম্ভব নয় "। রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায়ের ক্ষোভ প্রশমন করতে তার বাড়িতে পিকে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বৈঠক প্রসঙ্গে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদীঘি ব্লকের ঝাড়বাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে এক জনসভায় যোগ দিতে আসেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে রাজ্য সরকারের দুয়ারে সরকার কর্মসূচিকে  ‘যমের দুয়ারে সরকার’ বলে কটাক্ষ করেন বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  তিনি এও বলেন এই সরকারের শেষদিন চলে এসেছে। তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা তথা সাংসদ সৌগত রায়ও তা বুঝে গিয়ে দলকে ডুবন্ত জাহাজের সাথে তুলনা করেছেন।

তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়কে একজন জোকার বলে কটাক্ষ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  তিনি বলেন রাজ্যে একজন মাত্র শিক্ষিত লোক আছেন তিনি কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়। তিনি কমেডিয়ান ৷ মানুষ তার কমেডি শুনে উপভোগ করছেন। আজ পূর্বস্থলিতে একজন বিজেপি কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় দিলীপ ঘোষ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস এখন পাগল কুকুরের মতো হয়ে গিয়েছে, কেবল হিংসা দিয়ে খুন করে বিজেপিকে আটকাবার চেষ্টা করছেন যা অসম্ভব। রাজ্যের মানুষ বিজেপিকে গ্রহণ করেছে। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে এরাজ্য থেকে তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করবে।এই রাজ্যের পুলিশ নপুংশক হয়ে আছে, রাজ্যে যে খুন খারাপি চলছে তার একটা সীমা আছে। আমি বলে দিচ্ছি এই ডিসেম্বরের পর থেকে উল্টো মার শুরু হবে "।  রায়গঞ্জ শহরের মোহনবাটি এলাকায় বিজেপির  চায়ে পে চর্চা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে সাংবাদিক সম্মেলনে এমন মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

উত্তর দিনাজপুর জেলায় দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে রবিবারই রায়গঞ্জে আসেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  সকালে দলের চায়ে পে চর্চা অনুষ্ঠানে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু, বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে পাশে নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘বাংলার দুর্ভাগ্য আজকে যে বাংলার মুখ এখন ভাইপো, দিদি আর একজন ক্ষ্যাপাটে আইনজীবী। এই লোকগুলি বাংলাকেও ডুবিয়েছে তৃণমূলকেও ডোবাবে। এরা আইন জানেন না, সংবিধান জানেন না। এরা গভর্নরের বিরুদ্ধে কেস করার কথা বলে,  এরা জানে না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দপ্তর আইএএস, আইপিএস-দের যেকোনও সময় ডাকতে পারে। কিন্তু এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে ডি এম ও এস পি রা যান না। তিনি বলেন সবে তো ডাক এসেছে এরপর কি হয় দেখুন।’

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ  বন্দোপাধ্যায় সম্পর্কে বলেন, " কল্যান  বন্দোপাধ্যায় কে এই হরিদাস পাল?  এখানকার একজন এম পি। তাঁর এব্যাপারে কি বলার অধিকার আছে? সামনের বার কল্যাণ  বন্দোপাধ্যায়কে হারিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেব আমরা। তাঁর পাঠানো চিঠি দিল্লিতে ডাস্টবিনে ফেলে রাখা আছে "। হালিশহরে বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় সরাসরি তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  তিনি বলেন, ‘তৃণমূল দলটা পুরোটাই দুস্কৃতকারীদের দল।’

Uttam Paul

Published by: Elina Datta
First published: December 13, 2020, 7:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर