corona virus btn
corona virus btn
Loading

জাতীয় দলের ক্রিকেটারকে ইদের উপহার ক্রিকেট লাভার্স সংগঠনের

জাতীয় দলের ক্রিকেটারকে ইদের উপহার ক্রিকেট লাভার্স সংগঠনের

সোমবার খুশির ইদ। তাই রবিবার ক্রিকেটারের হাতে ইদের উপহার হিসেবে নতুন পোশাক তুলে দেওয়া হয়। সঙ্গে দশ হাজার টাকার চেকও।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: রাত পোহালেই খুশির ইদ। তার আগে জাতীয় দলের ক্রিকেটার আব্দুল খালেকের পরিবারের পাশে দাঁড়াল শিলিগুড়ি ক্রিকেট লাভার্স ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন। আব্দুল খালেক বিশেষ ভাবে সক্ষম জাতীয় দলের নিয়মিত ক্রিকেটার।

কোভিড-১৯-এ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। আর তাই করোনা মোকাবিলায় চলছে লকডাউন। তাই অনেকেই এখন অসহায়। খালেকও গত মাসের বেতন পাননি। এই খবর জানতে পেরেই ওর পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা নেয় ক্রিকেট লাভার্সের সদস্যরা। সোমবার খুশির ইদ। তাই রবিবার তাঁর হাতে ইদের উপহার হিসেবে নতুন পোশাক তুলে দেওয়া হয়। সঙ্গে দশ হাজার টাকার চেকও।

রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব নিজেই তা তুলে দেন খালেকের হাতে। সেইসঙ্গে ক্রিকেট লাভার্স ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশনের এ হেন উদ্যোগের প্রশংসা করেন। আব্দুল খালেকও স্বভাবতই খুশি। তাঁর কথায় নিজের পরিবারের কাছ থেকে কিছু উপহার পেলে কার না ভাল লাগে! পাশাপাশি তাঁর বার্তা, ভিড় নয়। নিজের নিজের বাড়িতেই ইদ পালন করুন সকলে।

দু'মাসের বেশি সময় ধরে লকডাউন চলছে। এই সময়ে শিলিগুড়ি ও লাগোয়া এলাকার দুঃস্থ খেলোয়াড়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন ক্রিকেট লাভার্সরা। ক্রিকেট, ফুটবল, এথলিট থেকে রাগবি প্রায় সব খেলোয়াড়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন ওরা। সাধ্যমতো দফায় দফায় তুলে দিয়েছেন ত্রাণ সামগ্রী। শুধু খেলোয়াড়েরাই নন, মাঠের মালি থেকে অন্য কর্মীদের হাতেও তুলে দিয়েছেন খাদ্য সামগ্রী। চাল, ডাল, তেল, লবন, আলু সহ অন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সবকিছুই। আজ তারা অন্য ভূমিকায়। বিশেষভাবে সক্ষম জাতীয় দলের ক্রিকেটারের পাশে। সংগঠনের সভাপতি মনোজ ভার্মা জানান, গত মাসে ও বেতন পায়নি। কাল পবিত্র ইদ। তাই সম্প্রীতির একটা বার্তা দিতে চেয়েই এগিয়ে আসা। আর্থিক সাহায্যের পাশাপাশি ইদের সরঞ্জামও দেওয়া হয়েছে খালেকের হাতে। মন্ত্রী থেকে ক্রিকেট লাভার্স সংগঠনের কর্তারা খালেকের আগামী দিনের সাফল্য কামনা করেছেন। সেইসঙ্গে লকডাউনের সময়ে অসহায়, দুঃস্থ খেলোয়াড়দের পাশে ধারাবাহিকভাবে থাকবে সংগঠনের সদস্যরা বলে জানিয়েছেন সভাপতি।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: May 24, 2020, 11:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर