ঐক্য হল না মোর্চার দুই শিবিরের, পাহাড়ের ফায়দা কি তুলতে পারবে গেরুয়া শিবির?

ঐক্য হল না মোর্চার দুই শিবিরের, পাহাড়ের ফায়দা কি তুলতে পারবে গেরুয়া শিবির?

পাহাড়ের তিন আসনের লড়াই এবারে ত্রিমুখী। পাহাড়ের রাশ কার হাতে থাকবে?

পাহাড়ের তিন আসনের লড়াই এবারে ত্রিমুখী। পাহাড়ের রাশ কার হাতে থাকবে?

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: প্রত্যাশা মতোই পাহাড়ে ঐক্যবদ্ধ হল না যুযুধান দুই মোর্চা শিবির। আলাদা করে লড়াইয়ের ময়দানে গুরুংপন্থী মোর্চা এবং বিনয়পন্থী মোর্চা। দুই শিবিরই বলছে তৃণমূলের সঙ্গে জোট গড়েই ভোটের ময়দানে। কিন্তু এক ইঞ্চি জমি কেউ কাউকে ছাড়তে নারাজ। তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে শুরু করে ভোট কুশলী পিকে বহুবার চেষ্টা করেও দুই শিবিরজে এক করতে পারল না। ফলত পাহাড়ের তিন আসনের লড়াই এবারে ত্রিমুখী। পাহাড়ের রাশ কার হাতে থাকবে? বিমল গুরুং, রোশন গিরিদের দখলে? নাকি বিনিয় তামাং, অনীত থাপাদের হাতে তার উত্তর মিলবে মে মাসের ২ তারিখে।

আপাতত জিটিএ'র মসনদে অনীত থাপা, বিনয় তামাংরা। পাহাড়ের উন্নয়নকে হাতিয়ার করেই ভোটের ময়দানে দুই শিবির। যেখানে এই প্রথম পাহাড়ের নির্বাচনে নেই পৃথক রাজ্য গোর্খাল্যাণ্ডের আওয়াজ। উলটে উঠে এসেছে দুই দাবী। এক) পাহাড়ের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান করতে হবে। দুই) ১১টি জনজাতিকে তফসিলি উপজাতির স্বীকৃতি দিতে হবে। দুই দাবীই কেন্দ্রের আওতাভুক্ত। তাই মূল লড়াই বিজেপির সাথে বলেই দাবী দুই শিবিরের। "বিমল গুরুং কোনো ফ্যাক্টরই নয়। তিন আসনেই মূল লড়াই বিজেপির সঙ্গে। আপাতত কোনো কঠিন প্রতিপক্ষ নেই আমাদের কাছে।"

রবিবার মংপুতে জনসভা করে পাহাড়ের তিন আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে একথা বলেন বিনয়পন্থী মোর্চার সভাপতি বিনয় তামাং। নিজেদের ইস্তেহারে পাহাড়ের ৫২টি সমস্যা সমাধানের কথা উল্লেখ করেছে। তিন প্রার্থী জয়ী হয়ে এলে সব কটি সমস্যা মেটাবে বলেও জানান তিনি। আগামী পরশু অর্থাৎ মঙ্গলবার তিন আসনে আলাদা করে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করবেন বিমল গুরুংও। দুই মোর্চা আলাদা করে লড়াইয়ের ময়দানে নামায় বাড়তি সুবিধে কি পাবে বিজেপি শিবির? সেদিকেই নজর রাজনৈতিক মহলের। ভোট কাটাকাটির সুযোগের ফায়দা তুলবে কি গেরুয়া শিবির? সঙ্গে রয়েছে জিএনএলএফ সহ পাঁচটি আঞ্চলিক দল। বিনয়পন্থী মোর্চার হয়ে দার্জিলিংয়ের প্রার্থী কেশবরাজ পোখরেল। কার্শিয়ংয়ের প্রার্থী ছিরিং লামা ডাহাল, কালিম্পং থেকে লড়বেন রুদেন লেপচা।

Published by:Arka Deb
First published: