Home /News /north-bengal /
Bangla News| Viral Fever|| পুজোর মুখে হাহাকার! উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে বাড়ছে শিশু মৃত্যু, উদ্বেগে অভিভাবকরা

Bangla News| Viral Fever|| পুজোর মুখে হাহাকার! উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে বাড়ছে শিশু মৃত্যু, উদ্বেগে অভিভাবকরা

উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে বাড়ছে শিশু মৃত্যু।

উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে বাড়ছে শিশু মৃত্যু।

6 Child death in North Bengal Medical College: শুক্রবার বিকেলের পর আরও ৩ শিশুর মৃত্যু উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে। এ নিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় মৃত ৬ শিশুর মৃত্যু হল। এক জনের মৃত্যু হয়েছে এআরআইতে।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: থামছে না মৃত্যুর হার! শিশু মৃত্যুর (Child Death) সংখ্যা বাড়ছে উত্তরে! শুক্রবার (Friday) বিকেলের পর আরও ৩ শিশুর মৃত্যু উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে (North Bengal Medical College)। এ নিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় মৃত ৬ শিশুর মৃত্যু (6 Child died) হল। এক জনের মৃত্যু হয়েছে এআরআইতে। বাকিদের মৃত্যু হয়েছে অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়ে, দাবি মেডিক্যাল সুপারের।

গত ১১ দিনে ১ বালক-সহ ২২ শিশুর মৃত্যু (Child Death) হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে (North Bengal Medical College)। যার মধ্যে এআরআইতেই ৯ জনের! যা যথেষ্টেই উদ্বেগের! ক্রমেই বাড়ছে রোগী ভর্তির চাপও। আসছে অন্যান্য জেলা থেকে রেফার রোগীও। নতুন করে গত ২৪ ঘন্টায় ৪৯ জন শিশু ভর্তি হয়েছে মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। যার মধ্যে এআরআইতে আক্রান্ত ১৬ শিশু। মেডিক্যাল সুপার সঞ্জয় মল্লিক জানান, বিভিন্ন কারণে মৃত্যু হচ্ছে শিশুদের। কম ওজন তো রয়েছেই, সঙ্গে শারিরীক দূর্বলতা, হার্টের অসুখ, সেপসিসেও আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা।

যদিও অভিভাবকেরা জানাচ্ছেন, জ্বর, সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি করা হচ্ছে শিশুদের। তাহলে কি মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরী করছে মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ? মৃত এক শিশুর মা আলিয়া খাতুনও জানান, জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে বাচ্চাকে ভর্তি করা হয়েছিল চার দিন আগে। অথচ মৃত্যুর কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে, হার্টের দুর্বলতা। এ দিকে শিশুদের আরটিপিসিআর পরীক্ষা করানো হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। শুধুমাত্র র‍্যাট করা হচ্ছে। যদিও সুপারের দাবি, জ্বর নিয়ে আসা সব শিশুদেরই প্রথমে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট (RAT) করা হচ্ছে। রিপোর্ট নেগেটিভ এলে সাধারন ওয়ার্ডেই রাখা হচ্ছে শিশুদের। পরে কোনও উপস্বর্গ থাকলে সেইসময় আরটিপিসিআর টেস্টও (RT-PCR Test) করা হচ্ছে। তার রিপোর্ট দেখেই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। আরটিপিসিআর (RT-PCR) করা হলে রিপোর্ট আসতে সময় লাগবে। তাই র‍্যাট (RAT) করা হচ্ছে।

আক্রান্তের (Viral Fever) গ্রাফ বাড়ায় বাড়ছে উদ্বেগ। উদ্বেগে অভিভাবকেরা। মেডিক্যালেই রাত কাটাচ্ছেন অন্য জেলা থেকে আসা অভিভাবকেরা। দুশ্চিন্তা বাড়ছে। কিছুতেই জ্বর কমছে না বলে জানান তারা। যদিও স্বাস্থ্য দফতরও তৎপর। পরিস্থিতি উদ্বেগজনক নয় বলে দাবি।

Partha Sarkar

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Siliguri, Viral Fever

পরবর্তী খবর