সরাসরি বাড়িতে ঢুকে গুলি! মৃত ১ যুবক, আহত ২ কিশোর,কিশোরী

এই শুট আউট ঘটনার মূল অভিযুক্ত মহঃ ডাইমল পলাতক। পুলিশ তাদের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু করার পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

এই শুট আউট ঘটনার মূল অভিযুক্ত মহঃ ডাইমল পলাতক। পুলিশ তাদের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু করার পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

  • Share this:

#ইসলামপুর: প্রকাশ্য দিবালোকে শুট আউটের ঘটনায় ব্যাপক আতঙ্ক ও উত্তেজনা ছড়ালো উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরে আগডিমটি খুন্তি অঞ্চলের বন্দিরামগছ গ্রামে। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত এক যুবক। আহত দুই কিশোর,কিশোরী। আহত দুই জনকেই ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  মৃত ব্যক্তির নাম মহম্মদ ফায়াল। ঘটনার পর থেকেই দুষ্কৃতীরা পলাতক। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ও উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। ইসলামপুর থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। জেলার পুলিশ শচীন মক্কার জানিয়েছেন, প্রতিবেশীদের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিবাদে তিনজন দোনালা বন্দুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছিল। তাদের মধ্যে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আহত দুইজনকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।এলাকায় পুলিশ পৌঁছে অভিযুক্তের তল্লাশি চালাচ্ছে।

চার মাস আগেই ইসলামপুর থানার আগডিমটি খন্তি গ্রাম পঞ্চায়েতের বন্দিরাগছ এলাকায় মহম্মদ ফায়ালের পরিবারের মধ্যে জমি সংক্রান্ত  বিবাদ হয়েছিল। ঘটনার পর ফায়াল শ্রমিকের কাজ করতে ভিন রাজ্যে চলে যায়। অনেকদিন আগে সে বাড়িতে ফেরে। বুধবার দুপুরে মহঃ ডাইমূল আচমকাই দোনালা বন্দুক নিয়ে ফায়ালের বাড়িতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। বিতর্ক চলাকালীন মহঃ ডাইমূল এলোপাথারি গুলি চালায়। ছড়রা গুলিতেই গুলিবিদ্ধ হন মহম্মদ ফায়াল ( ২৪),  নাসিম আখতার ( ১০),  এবং রোশনি খাতুন ( ১৩) । গুলিবিদ্ধ আহতদের পরিবারের লোকেরা  উদ্ধার করে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসে। ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের  চিকিৎসকেরা মহম্মদ ফায়ালকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। বাকিদের চিকিৎসা চলছে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে।  এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বন্দিরাগছ গ্রামে।

এই শুট আউট ঘটনার মূল অভিযুক্ত মহঃ ডাইমল পলাতক। পুলিশ তাদের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু করার পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।মৃত ফয়ালের আত্মীয় মহঃ ইন্তিয়াজ জানান, মহঃ ডাইমলের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে ঝামেলা চলছিল। বুধবার, আচমকায় ডাইমল বাড়িতে এসে এলোপাথারি গুলি করে। ফায়াল সেই সময় খেতে বসেছিল। সেই সময় তার গুলি লাগে। গুলিতেই ফায়ালের মৃত্যু হয়। জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানান, জমি নিয়ে এলাকায় বিবাদ ছিল। সেই ঘটনায় এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে আরও দু’জন। পুলিশ অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।

Published by:Pooja Basu
First published: