গণধর্ষণে জন্ম হয়েছিল কন্যাসন্তানের, প্রকাশ্যেই ধর্ষিতাকে হুমকি দিচ্ছে জামিনে মুক্ত ধর্ষকরা

গণধর্ষণে জন্ম হয়েছিল কন্যাসন্তানের, প্রকাশ্যেই ধর্ষিতাকে হুমকি দিচ্ছে জামিনে মুক্ত ধর্ষকরা

জামিনে মুক্ত ধর্ষকরা ঘুরে বেড়াচ্ছে চোখের সামনেই ৷ সেই মামলারও নিষ্পত্তি হয়নি এখনও ৷

  • Share this:

#মালদহ: তিন বছর আগের ঘটনা ৷ গণধর্ষণের শিকার হতে হয়েছিল তরুণীকে ৷ ধর্ষণে প্রেগন্যান্ট হয়ে পড়েন তিনি ৷ এক কন্যা সন্তানের জন্মও দেন ৷ কিন্তু তিন বছর পরেও মেলেনি সুবিচার ৷ জামিনে মুক্ত ধর্ষকরা ঘুরে বেড়াচ্ছে চোখের সামনেই ৷ সেই মামলারও নিষ্পত্তি হয়নি এখনও ৷ ঘটনাটি মালদহের কাউয়ামারি গ্রামের। উপরন্তু জামিনে মুক্ত হয়ে নির্যাতিতা ওই তরুণী ও তাঁর বাড়ির লোকজনদের রীতিমতো হুমকি দিচ্ছে ধর্ষকরা ৷ মামলা তুলে নিতেও চাপ দেওয়া হচ্ছে ৷ এমনকি নির্যাতিতা যুবতীর দুই ভাইকেও মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে বলে অভিযোগ। তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়ার সঙ্গে দেখা করেন নির্যাতিতা ও তাঁর পরিবার। প্রায় তিন বছর আগে কাউয়ামারি গ্রামের ওই যুবতীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে প্রতিবেশী সাইদুর রহমান, তাহির আলি, তোরাব আলি। সেই সময় নির্যাতিতা ওই যুবতী নাবালিকা ছিলেন। পুলিশ ওই তিনজনকে গ্রেফতার করে ৷ কিন্তু জেল খাটা ছিল নামমাত্রেই ৷ কয়েকদিনের মধ্যে জামিনে ছাড়া পেয়ে যায় তারা ৷ ইতিমধ্যেই এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন ওই তরুণী ৷ এই ঘটনার পর থেকেই সমাজে একঘরে হয়ে যান তাঁরা ৷ তার উপর আবার সমানেই চলতে থাকে প্রাণনাশের হুমকি ৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ ৷

First published: February 14, 2020, 6:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर