গাড়ি নিয়ে অপহরণের ছক, স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়ে গেল দুষ্কৃতীরাই

গাড়ি নিয়ে অপহরণের ছক, স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়ে গেল দুষ্কৃতীরাই

ভিনরাজ্যে শ্রমিক সরবরাহের কাজ করে মণিরুল৷ তাই ব্যবসায়িক লেনদেন নিয়ে গন্ডগোলের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তদন্তকারীরা৷

  • Share this:

SEBAK DEBSHARMA

#মালদহ: অনেকটা বলিউড ছবির চিত্রনাট্যের মতো ঘটনা৷ গাড়ি নিয়ে অপহরণের চেষ্টা৷ মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার ছক৷ কিন্তু শেষরক্ষা হল কই৷ অপহরণ করতে এসে স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়ে গেল দুষ্কৃতীরাই৷

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে৷ মালদহের রতুয়ার চাঁদমনি থেকে স্থানীয় যুবক মণিরুল হককে অপহরণ করতে আসে ৫ দুষ্কৃতী৷ সেসময় বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে একাই বাড়ি ফিরছিলেন মণিরুল৷ হঠাৎই তাঁর রাস্তা আটকে দাঁড়ায় একটি গাড়ি৷ জোর করে তাঁকে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা৷ কিন্তু যুবকের চিৎকারেই ভেস্তে যায় অপহরণের ছক৷ মণিরুলের চিৎকার শুনে ছুটে আসেন এলাকাবাসী৷ ধরে ফেলেন ৩ দুষ্কৃতীকে৷ ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেয় বাকি দু'জন৷ পরে ৩ দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করে রতুয়া থানার পুলিশ৷ বাজেয়াপ্ত করা হয় পাইপগান, কার্তুজ ও অপহরণের জন্য় নিয়ে আসা গাড়িটি৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত আরজাউল হক, মহম্মদ ফরিদুল হক ও মহম্মদ ইব্রাহিম মালদহের কালিয়াচকের বাসিন্দা৷ তদন্তকারীদের প্রাথমিক অনুমান, স্থানীয় কারও কাছ থেকেই মণিরুলকে অপহরণের 'সুপারি' পেয়েছিল দুষ্কৃতীরা৷ ভিনরাজ্যে শ্রমিক সরবরাহের কাজ করে মণিরুল৷ তাই ব্যবসায়িক লেনদেন নিয়ে গন্ডগোলের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তদন্তকারীরা৷ ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। অপহরণকাণ্ডের কিনারা করতে, মণিরুলকেও আলাদা করে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চান তদন্তকারীরা।

First published: January 31, 2020, 9:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर