ফের 'বেসুরো' তৃণমূল নেতা, হেমতাবাদে তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতির ইস্তফা

ফের 'বেসুরো' তৃণমূল নেতা, হেমতাবাদে তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতির ইস্তফা
হেমতাবাদে তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতির সুশোভন গুপ্তের ইস্তফা।

দলে গুরুত্ব না পেয়ে ব্লক সভাপতির পদ ছাড়লেন উত্তর দিনাজপুর জেলার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের হেমতাবাদ ব্লক সভাপতি সুশোভন গুপ্ত।

  • Share this:

#হেমতাবাদ: দলে গুরুত্ব না পেয়ে ব্লক সভাপতির পদ ছাড়লেন উত্তর দিনাজপুর জেলার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের হেমতাবাদ ব্লক সভাপতি সুশোভন গুপ্ত। ব্লক সভাপতি ইস্তফাপত্রের প্রাপ্তি স্বীকার করলেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি। দলের কর্মসূচিতে ডাকা হলেও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতি কর্মসূচিতে অংশ নিতেন না বলে অভিযোগ করেছেন তৃনমূল কংগ্রেসের হেমতাবাদ ব্লক সহ-সভাপতি মজিবুর রহমান দুলাল।

২০১৭ সালে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের হেমতাবাদ ব্লক সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন সুশোভন গুপ্ত। দীর্ঘ তিন বছর এই দায়িত্বে আছেন। ভোটের আগে দলের কর্মসূচিতে আমন্ত্রণ না জানানো অভিমানে আজ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন সুশোভনবাবু। শুধু তিনিই নন তার দলের কোন সদস্যকেই মর্যদা না দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন। তার ইস্তফাপত্র দলের জেলা সভাপতি অনুপ করের কাছে মেইল এবং হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে পাঠিয়ে দিয়েছেন। সুশোভনবাবু পদ থেকে ইস্তফা দিলেও এখনই অন্য কোনও দলে যাচ্ছেন কি না সেই ব্যাপারে চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহন করেননি। দলের কর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করেই পরবর্তী সিদ্ধান্তের কথা জানাবেন বলে জানিয়েছেন সুশোভন গুপ্ত।

ইস্তফাপত্র হাতে পেয়েই অভিমানী নেতার সঙ্গে কথা বলেছেন জেলা সভাপতি অনুপ কর। তিনি জানিয়েছেন, জেলা কমিটির সমস্ত কর্মসূচিতেই তাঁদের মর্যদা দেওয়া হলেও স্থানীয় স্তরে কিছু সমস্যা রয়েছে। ইতিমধ্যে পুরনো কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। নতুন কমিটিতে তাঁকে রাখা হবে কি না সে বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতির পদ ছাড়লেও তাঁকে অন্য কোন পদে আনা যায় কিনা সেই বিষয়েও দলীয় নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন।সুশোভনবাবুর অভিমান হলেও দল যে ছাড়ছেন না সে ব্যাপারে তাঁকে আশ্বস্ত করেছেন।


এ দিকে তৃনমূল কংগ্রেসের হেমতাবাদ ব্লকের সহ-সভাপতি মজিবুর রহমান দুলাল জানান, ব্লকের ছাত্র সংগঠনের দায়িত্বে থাকলেও দলের কোন কর্মসূচিতে আমন্ত্রন জানানো সত্বেও তাঁকে পাওয়া যেত না। এছাড়াও তার দায়িত্বে দেওয়া নিয়েও দলের মধ্যে অস্পষ্টতা রয়েছে। ভোটের মুখে এ ধরনের পদক্ষেপ অন্য দলকে সুবিধা করে দেবে বলে মজিবুর রহমান দুলালের অভিযোগ।

Uttam Paul

Published by:Shubhagata Dey
First published: