• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • ওলি-গলিতেও আগুনের মোকাবিলায় প্রস্তুত দমকল বিভাগ, নতুন সংযোজন MSWT

ওলি-গলিতেও আগুনের মোকাবিলায় প্রস্তুত দমকল বিভাগ, নতুন সংযোজন MSWT

অবশেষে নতুন পথ খুজে বার করল দমকল বিভাগ। রাজ্যর যে কোন শহরেই ঝুপড়ি ও সংকীর্ণ পথের দেখা মেলে।

অবশেষে নতুন পথ খুজে বার করল দমকল বিভাগ। রাজ্যর যে কোন শহরেই ঝুপড়ি ও সংকীর্ণ পথের দেখা মেলে।

অবশেষে নতুন পথ খুজে বার করল দমকল বিভাগ। রাজ্যর যে কোন শহরেই ঝুপড়ি ও সংকীর্ণ পথের দেখা মেলে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার: অবশেষে নতুন পথ খুজে বার করল দমকল বিভাগ। রাজ্যর যে কোন শহরেই ঝুপড়ি ও সংকীর্ণ পথের দেখা মেলে। এমনকি আগুন লাগার ঘটনাগুলিও সেই সব এলাকাতেই বেশী হয়ে থাকে। সংকীর্ণ গলি বা সরু রাস্তায় দমকলের বিশালাকার ইঞ্জিন পৌছতে অনেক ক্ষেত্রেই বাধাও পেয়েছে। ফলস্বরূপ আগুনে ক্ষতির পরিমানও উর্ধ্বমুখী হত। শেষ অবধি বিকল্প পথ খুজে বের করা ছাড়া কোন উপায় ছিল না দমকল বিভাগের কর্মীদের কাছে। এবার সেই সমস্যা এড়াতেই দমকল বিভাগে নতুন করে সংযোজন করা হল MSWT ইঞ্জিন। যা সহজেই ওলি-গলিতে ঢুকে গিয়ে আগুনের মোকাবিলা করতে পারবে। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা সমস্যার ইতি হল দমকল বিভাগের। এখন থেকে ওলি-গলিতেও পৌছে যাবে দমকলের এই ইঞ্জিন। যার ফলে সহজেই আগুনের ওপর নিয়ন্ত্রন আনা যাবে। প্রয়োজন অনুসারে পরবর্তীতে বড়ো ইঞ্জিনের ব্যবস্থাও থাকবে। অগ্নিনির্বাপন কেন্দ্র সূত্রে জানা গিয়েছে, পুজোর মুখে উত্তরবঙ্গে মোট তিনটি MSWT ইঞ্জিন দেওয়া হয় বিভিন্ন জেলার দমকল কেন্দ্র গুলিকে। এর মধ্যে একটি ইঞ্জিন আলিপুরদুয়ার শহরে রয়েছে। বাকী দুটির একটি জলপাইগুড়ি ও একটি কোচবিহারে রাখা হয়েছে। এই ইঞ্জিন প্রত্যেকটিই অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে তৈরী করা হয়েছে । ইঞ্জিনেই রয়েছে একটি হাইড্রোলিক ল্যাডার। এছাড়াও এই ইঞ্জিনের হর্সপাওয়ার যথেষ্টই বেশী। জলপাইগুড়ি জেলার ডিভিশন্যাল অফিসার আশিষ পুততুন্ড জানান, “আমরা দমকল বিভাগের সার্বিক উন্নয়নে বিশ্বাস করি। সেই লক্ষ্যে ইতিমধ্যে তিনটি জেলায় অত্যাধুনিক MSWT ইঞ্জিন আনা হয়েছে। গাড়িটি দেখতে ছোট হলেও এর ক্ষমতা যথেষ্টই বেশী। প্রায় একঘন্টা আগুনের সাথে এই ইঞ্জিন মোকাবিলা করতে পারবে। আগামী দিনে জেলার প্রতিটি দমকল কেন্দ্রে এই ইঞ্জিন পাঠানো হবে”।

    First published: