Home /News /north-24-parganas /
North 24 Parganas: ৬০ ঘণ্টা অতিক্রান্ত,সান্দাকফুতে নিখোঁজদের ফিরে পেতে মুখ্যমন্ত্রীকে আর্জি পরিবারের

North 24 Parganas: ৬০ ঘণ্টা অতিক্রান্ত,সান্দাকফুতে নিখোঁজদের ফিরে পেতে মুখ্যমন্ত্রীকে আর্জি পরিবারের

বাবার

বাবার কোন খোঁজ না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন দীপেশ বাবুর মেয়ে

অতিক্রান্ত হয়েছে ৬০ ঘণ্টারও বেশি সময়। এখন কোন খোঁজ মেলেনি সান্দাকফু তে ঘুরতে গিয়ে নিখোঁজ উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরের দুই বাসিন্দাদের।

  • Share this:

    উত্তর ২৪ পরগনা: অতিক্রান্ত হয়েছে ৬০ ঘণ্টারও বেশি সময়। এখন কোন খোঁজ মেলেনি সান্দাকফু তে ঘুরতে গিয়ে নিখোঁজ উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরের দুই বাসিন্দাদের। ফলে চরম উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছে ওই দুই পরিবারের সদস্যদের। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর কাছে কাতর আর্জি জানাচ্ছেন নিখোঁজ ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যরা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীপেশ সাহা টাকার বিনিময়ে ১৮ জন পর্যটককে নিয়ে যান উত্তরবঙ্গ সফরে। যাদের মধ্যে অধিকাংশই অশোকনগরে বাসিন্দা। দীপেশ সাহা যাদেরকে নিয়ে গিয়েছিলেন, তাদের সাথে টাকাপয়সা নিয়ে একটু গন্ডগোল হয় বলে জানায় দীপেশ বাবুর মেয়ে অস্মিতা সাহা। এমনকি দীপেশ বাবুকে মারতেও যাওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। তারপর থেকেই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না দীপেশবাবু সহ আর এক পর্যটক বাবাই দে কে। যেই জঙ্গলে দীপেশ ও বাবাই হারিয়ে গেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে সেই জঙ্গলে জংলী পশু থাকতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও বলে পরিবার সূত্রে জানতে পারা যায়। যেকোন সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ফলে বাবা কে আর ফিরে পাবে কিনা তাই নিয়েই সংশয় প্রকাশ করছে মেয়ে অস্মিতা।

    দুই পরিবার রীতিমত চিন্তায় ভেঙে পরেছে। সরকারের কাছে কাতর আবেদন জানিয়েছেন তারা, যাতে দুজনক দ্রুত উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়। যাদেরকে ট্যুরে নিয়ে গিয়েছিলেন দীপেশ তাদের সাথে গন্ডগোলের বিষয়টি স্বীকারও করে তার স্ত্রী স্বপ্না দেবী। দীপেশ বাবুর স্ত্রী সব জায়গায় অনলাইন পেমেন্ট করে টাকা মিটিয়ে দিয়েছেন বলেও জানান।

    আরও পড়ুনঃ সান্দাকফু বেড়াতে গিয়ে গভীর জঙ্গলে নিখোঁজ উত্তর ২৪ পরগনার দুই বাসিন্দা

    তাহলে কি কারণে দিপেশের সাথে ঘুরতে যাওয়া মানু্যদের গন্ডগোল হল? কেনই বা তাকে মারতে গেল? তারপর থেকেই কেন নিখোঁজ দিপেশ আর বাবাই! সেই নিয়েই প্রশ্ন উঠছে। পাশাপাশি এই গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্রমশ রহস্য দানা বাঁধছে। পরিবারের তরফ থেকে জানা গিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন খোঁজ চালাচ্ছে ওই দুজনের।

    আরও পড়ুনঃ যাত্রী পরিষেবায় রেকর্ড কলকাতা বিমানবন্দরের

    ইতিমধ্যেই বিধায়ক সহ পুলিশ আধিকারিকদের কাছেও বিষয়টি জানানো হয়েছে পরিবারের তরফ থেকে। অশোকনগর কল্যাণগড় পুরসভার তরফ থেকেও পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

    Rudra Narayan Roy
    First published:

    Tags: Ashokenagar, North 24 Parganas, Sandakphu

    পরবর্তী খবর