• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • WILL ABHISHEK BANERJEE GO TO TRIPURA THOUGH POLICE CANCELLED RALLY PERMISSION SPECULATION ON AKD

Abhishek Banerjee| Tripura| ত্রিপুরায় পা রাখবেন অভিষেক? চাপানউতোরের মধ্যেই উত্তেজনায় ফুটছে ত্রিপুরা

অভিষেক কি আবার ত্রিপুরায় যাচ্ছেন, জল্পনা চরমে।

Abhishek Banerjee| Tripura|মিছিলের নামে নাটক করছে তৃণমূল, অভিযোগ বিজেপির। পরবর্তী পরিকল্পনা কী, আজ জানাবে তৃণমূল। 

  • Share this:

#আগরতলা: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee Tripura Visit) সফর ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোর জারি আগরতলা জুড়ে। বিমানবন্দর থেকে আগরতলা শহর অবধি আসার রাস্তায় একাধিক ব্যানার, পোস্টার, পতাকা রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস ও  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তবে আগামী ১৬ তারিখ পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী মেনে অভিষেক বন্দোপাধ্যায় মিছিলে পা মেলাবেন কিনা তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছেই।

তৃণমূলের (TMC) তরফ থেকে অবশ্য জানানো হয়েছে, আজ বিকেলের দিকে তারা তাদের পরবর্তী কর্মসূচি জানিয়ে দেবে৷ ১৬ তারিখে মিছিলের অনুমতি দেয়নি ত্রিপুরা প্রশাসন। যদিও অভিষেক বন্দোপাধ্যায় ট্যুইট করে জানিয়েছেন, ত্রিপুরায় তাকে প্রবেশ করা থেকে কেউ আটকাতে পারবে না।তৃণমূল কংগ্রেসের এই রাজনৈতিক লড়াইকে অবশ্য কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি৷ ত্রিপুরার মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী জানিয়েছেন, "যা করছে তা একটা নাটক। ত্রিপুরায় ওদের কোনও সংগঠন নেই। শিলচর, কাছাড়, কলকাতা থেকে লোক নিয়ে এসে ওরা মিছিল করত। আর আগামীকাল ১৫ তারিখ আমাদের মহিলা মোর্চার আগে থেকেই অনুষ্ঠান ঠিক করে রাখা ছিল।"

প্রত্যাশিত ভাবেই ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পদযাত্রাকে কেন্দ্র করে  বিপ্লব দেব সরকারের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসে সংঘাত শুরু হয়েছে৷ আগামী কাল ১৫ সেপ্টেম্বর, বুধবার আগরতলায় পদযাত্রা করার কথা ছিল অভিষেকের৷ কিন্তু সেই মিছিলের অনুমতি দেয়নি ত্রিপুরা পুলিশ৷ অনুমতি না মেলায় পরের দিন, ১৬ সেপ্টেম্বর ত্রিপুরায় গিয়ে অভিষেক মিছিল করবেন বলে তৃণমূলের তরফে জানানো হয়৷ যদিও সেই মিছিলেরও অনুমতি খারিজ করেছে পুলিশ৷ এর পরই ট্যুইটারে বিপ্লব দেব সরকারকে তীব্র আক্রমণ করে অভিষেকের অভিযোগ, তাঁকে ত্রিপুরায় ঢুকতে না দেওয়ার জন্যই সর্বশক্তি প্রয়োগ করছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷

ট্যুইটারে অভিষেক লিখেছেন, 'বিজেপি মৃত্যুভয় পাচ্ছে৷ আমার ত্রিপুরায় ঢোকা আটকাতে বিপ্লব দেব সর্বশক্তি প্রয়োগ করছেন৷ আপনি যতই চেষ্টা করুন, আমাকে আটকাতে পারবেন না৷ তৃণমূলকে নিয়ে আপনার ভয়েই প্রমাণিত, সরকারে আপনার দিন ফুরিয়ে আসছে৷ সত্যিটা সবাই জানবে, এত ভয় দেখে আমার ভাল লাগছে৷'

কয়েকদিন আগেই তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছিল, আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর আগরতলায় মিছিল করবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই মতো পুলিশের কাছে মিছিলের অনুমতি চেয়ে চিঠি দেয় ত্রিপুরার তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ কিন্তু অনুমতি দেয়নি পুলিশ৷ ত্রিপুরা পুলিশের তরফে পাল্টা চিঠি দিয়ে তৃণমূল নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে, বুধবার তৃণমূল যে রুট ধরে, যে সময়ে মিছিল করার অনুমতি চেয়েছে, সেই একই রুটে এবং একই সময়ে অন্য একটি রাজনৈতিক দলকে আগে থেকে মিছিলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ ফলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কাতে তৃণমূলকে মিছিল করার অনুমতি দেওয়া যাবে না।

১৫ তারিখ মিছিলের অনুমতি না পেয়ে গতকালই ১৬ তারিখ মিছিল করার জন্য পুলিশের কাছে অনুমতি চায় তৃণমূল৷ এবারেও অনুমতি খারিজ করে পুলিশের তরফে যুক্তি দেওয়া হয়, ১৭ তারিখ বিশ্বকর্মা পুজো থাকায় আগের দিন থেকে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি রক্ষায় ব্যস্ত থাকবে পুলিশ৷  তাই ১৬ সেপ্টেম্বরও মিছিলের অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়৷ পুলিশের যুক্তি, ত্রিপুরায় রাজ্য জুড়ে ধুমধাম করে বিশ্বকর্মা পুজো পালিত হয়৷ তাই যান চলাচল ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করতে হয়৷ তাই বিশ্বকর্মা পুজোর আগের দিন তৃণমূলের মিছিলের নিরাপত্তার জন্য আলাদা করে পুলিশকর্মীদের মোতায়েন করা সম্ভব নয়৷

ত্রিপুরা পুলিশের এই দু'টি চিঠিই নিজের ট্যুইটের সঙ্গে পোস্ট করেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক৷অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভয় পেয়ে বিজেপি নানা ভাবে তাঁকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছে৷ কুণাল ঘোষের আরও অভিযোগ, ১৫ সেপ্টেম্বর মিছিলের অনুমতি চেয়ে যখন প্রথমবার চিঠি দেওয়া হয়েছিল, তখন পুলিশের তরফ থেকে অন্য কোনও দলের মিছিলের কথা বলা হয়নি৷

মিছিলের অনুমতি না দেওয়া নিয়ে তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষের কটাক্ষ, 'চিঠিতে পুলিশ বলছে গোটা আগরতলা শহরটাই নাকি মিছিলের জন্য অন্য কোনও দলকে দেওয়া হয়েছে৷ এর থেকে পুলিশ সরকারি ভাবে বলে দিক না গোটা আগরতলাটাই পুলিশ বিজেপি-র হাতে তাঁরা তুলে দিয়েছে৷ এসবের থেকেই বোঝা যাচ্ছে, ত্রিপুরার মানুষ তৃণমূলকে গ্রহণ করেছেন৷ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পদযাত্রা জনসমুদ্রে পরিণত হত৷ এত মানুষ মিছিলে হাঁটত, কেউ আটকানোর সাহস পেত না৷আমরা এর পরেও চাইলে মিছিলে হাঁটতে পারতাম৷ কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস শান্তি ও উন্নয়নের পথে যেতে চায়, সংঘাতের পথে নয়।

Published by:Arka Deb
First published: