হোম /খবর /দেশ /
পেপার গোল্ড কী? শারীরিক সোনার চেয়ে বিনিয়োগ কি লাভজনক? দেখে নিন বিস্তারিত!

পেপার গোল্ড কী? শারীরিক সোনার চেয়ে বিনিয়োগ কি লাভজনক? দেখে নিন বিস্তারিত!

এই সোনা হাতে ধরা যায় না, কিন্তু দাম সোনার দামের সমান।

  • Share this:

#কলকাতা: সোনায় বিনিয়োগের কথা বললেই চোখের সামনে ভাসে স্বর্ণালঙ্কার, সোনার কয়েন, বাট। যা ছোঁয়া যায়, ধরা যায় হাতে। এর বিপরীতে আরেক প্রকার সোনা আছে যা ‘পেপার গোল্ড’ বা কাগজের সোনা নামে পরিচিত। এই সোনা হাতে ধরা যায় না, কিন্তু দাম সোনার দামের সমান।

এই দুভাবেই সোনায় বিনিয়োগ করা যায়। তবে বিনিয়োগের আগে কোথায় রাখা হবে, খরচ, ফি, রক্ষণাবেক্ষণের ব্যবস্থা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া আবশ্যক। এখন বুঝতে হবে, স্বর্ণালঙ্কার বা শারীরিক সোনা না কি পেপার গোল্ড কোথায় বিনিয়োগ সবচেয়ে লাভজনক? কি কি সুবিধে দিতে পারে। সেগুলো জেনে নেওয়া যাক।

আরও পড়ুন: EPFO News: EPF সদস্যদের বাড়ছে পেনশন! বিশাল বয়ান মোদি সরকারের

পেপার গোল্ড কী: শারীরিক সোনা এবং পেপার গোল্ড সম্পর্কে প্রথমেই যেটা জানতে হবে সেটা হল, দেখতে কেমন! শারীরিক সোনা সম্পর্কে সবাই জানে, সোনার বার, কয়েন ইত্যাদি। এখানে বিনিয়োগ করে সরাসরি মালিক হওয়া যায়। অন্য দিকে, পেপার গোল্ড হল সোনার বিনিময়-বাণিজ্য তহবিল, বা ইটিএফএস কভার করে। মিউচুয়াল ফান্ডের সঙ্গে যারা পরিচিত তাঁরা গোল্ড ইটিএফ বিষয়ে জানেন। এর মাধ্যমে তহবিলে নির্দিষ্ট পরিমাণ সোনা কেনা হয় এবং তার শেয়ার ইস্যু করে।

এখানে বিনিয়োগ শারীরিকভাবে হাতে থাকল না, কিন্তু মালিকানা থাকল। ইটিএফ-এ শেয়ার কিনলে এটা পরিচালনা করবে ফান্ড ম্যানেজার। গোল্ড ইটিএফের মূল্য ট্র্যাক করা যাবে।

আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে দাম কমল তেলের, কলকাতাতেও কি সস্তা হল পেট্রোল ও ডিজেল

পেপার গোল্ড কোথায় কেনা যায়: বিশ্বস্ত ব্রোকারের থেকে প্রয়োজন অনুযায়ী বা বিনিয়োগ সামর্থ্য অনুযায়ী পেপার গোল্ড কেনা যায়।

গোল্ড ইটিএফে বিনিয়োগের সুবিধা: বিনিয়োগ কৌশলের উপর নির্ভর করে পোর্টফোলিওতে গোল্ড ইটিএফকে কাজে লাগাতে পারলে প্রচুর ইতিবাচক দিক রয়েছে। সামর্থ্য – অল্প পরিমাণে কেনা যায়। সংরক্ষণ বা বিতরণের খরচ সম্পর্কে চিন্তা করতে হবে না। লিকুইডিটি এবং লিভারেজ – গোল্ড ইটিএফ ট্রেড করা অনেক সহজ। বাজারে বা ব্যাঙ্কে অ্যাক্সেস থাকলে সহজে তোলা যায়। নমনীয়তা – ইটিএফ হল লিকুইড অ্যাসেট। যা সরাসরি সোনার কয়েন এবং বারে বিনিয়োগ করা হয়।

শারীরিক সোনা বনাম পেপার গোল্ড: দুটিরই কিছু ভালো এবং মন্দ দিক রয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা, পোর্টফোলিতে দুধরণের বিনিয়োগেরই পরামর্শ দেন। এতে বৈচিত্র আসে। তবে শুধু সোনা নয়, অন্যান্য ক্ষেত্রেও বিনিয়োগ করতে হবে। তবে মাথায় রাখতে হবে, সোনা অন্যান্য বিনিয়োগ মাধ্যমের চেয়ে নির্ভরযোগ্য। কিন্তু এর দামও ওঠা-নামা করে। তাই সোনার পাশাপাশি অন্যান্য মাধ্যমেও বিনিয়োগের কথা বলা হয়।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Gold, Paper Gold