কাশ্মীরে ৩৫এ ধারাও বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র, ৩৫এ ধারা কী?

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 05, 2019 03:33 PM IST
কাশ্মীরে ৩৫এ ধারাও বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র, ৩৫এ ধারা কী?
কাশ্মীর
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 05, 2019 03:33 PM IST

#নয়াদিল্লি: ৩৭০ ধারার পাশাপাশি ৩৫A ধারাও জম্মু-কাশ্মীর থেকে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার৷ এ হেন পরিস্থিতিতে জম্মু-কাশ্মীর জুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে৷ দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লা-সহ বেশ কয়েকজন রাজনৈতিক নেতাকে গৃহবন্দি করা হয়েছে৷ জম্মু-কাশ্মীরের ৩৫এ ধারাটি ঠিক কী?

১৯৫৪ সালে ৩৫এ ধারা চালুর সাংবিধানিক নির্দেশ দেন তত্‍‌কালীন দেশের রাষ্ট্রপতি রাজেন্দ্র প্রসাদ৷ নেহরু সরকারের পরামর্শেই ওই ধারা প্রযোজ্য হয় কাশ্মীরে৷ সংসদে বিল আনা হয়৷ জম্মু-কাশ্মীরের প্রশাসনে পঞ্জাবিদের নিয়োগের তীব্র বিরোধিতা শুরু করেন কাশ্মীরি পণ্ডিতরা৷ এই কারণেই, ১৯২৭ সালে একটি আইন এনেছিলেন মহারাজা হরি সিং৷ সেই আইনে কাশ্মীরের স্থায়ী বাসিন্দাদের কিছু নির্দিষ্ট সুবিধা দেওয়া হয়৷ স্বাধীনতার পরে ১৯৫২ সালে তত্‍‌কালীন প্রধানমন্ত্রী জওহরাল নেহরু ও জম্মু-কাশ্মীরের প্রধানমন্ত্রী শেখ আবদুল্লা দিল্লি চুক্তি সই করেন৷ দিল্লি চুক্তিতে জম্মু-কাশ্মীরের নাগরিকদের কিছু বিশেষ সুবিধায় সম্মতি জানানো হয়৷

৩৫এ ধারায় কী বলা হচ্ছে?

এই ধারায় জম্মু-কাশ্মীর সরকার কোনও ব্যক্তিকে কাশ্মীরের স্থায়ী নাগরিকত্ব দেওয়ার অধিকার রাখে৷ স্থায়ী নাগরিকরা কিছু বিশেষ পান৷ কাশ্মীরের স্থায়ী বাসিন্দারাই জম্মু-কাশ্মীরে জমি বা সম্পত্তি কেনা-বেচা, সরকারি চাকরি ও রাজ্যের স্কলারশিপ পাবেন৷

রাজ্যের বাসিন্দা কোনও মহিলা রাজ্যের বাইরের কাউকে বিয়ে করলে সম্পত্তির অধিকার থেকে বঞ্চিত হন। তাঁর উত্তরাধিকারীদেরও সম্পত্তির উপরে অধিকার থাকে না।

Loading...

কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থান কী?

এনডিএ সরকার জম্মু-কাশ্মীরের জন্য ৩৫এ ধারা চায় না৷ এই আইনের অপব্যবহার করা হচ্ছে বলে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাকে আগেই সতর্ক করেছিল কেন্দ্র৷

First published: 03:33:03 PM Aug 05, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर