Delhi Elections 2020: 'ওরা বাড়িতে ঢুকে মেয়েদের রেপ করবে, সব মসজিদ গুঁড়িয়ে দেব,' শাহিনবাগ নিয়ে হুমকি বিজেপি নেতার

Delhi Elections 2020: 'ওরা বাড়িতে ঢুকে মেয়েদের রেপ করবে, সব মসজিদ গুঁড়িয়ে দেব,' শাহিনবাগ নিয়ে হুমকি বিজেপি নেতার
নির্বাচনী সভায় প্রবেশ ভার্মা

সরকারি জমিতে যত মসজিদ রয়েছে, সব এক মাসের মধ্যে ধ্বংস করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি ওই বিজেপি নেতার৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: অনুরাগ ঠাকুরের পর এ বার আরেক বিজেপি নেতা প্রবেশ ভার্মার মুখে 'কুকথা৷' প্রবেশ ভার্মা পশ্চিম দিল্লির বিজেপি সাংসদ৷ খোলাখুলি হুমকি দিলেন, দিল্লিতে বিজেপি ক্ষমতায় এলে শাহিনবাগের বিক্ষোভ সাফ করে দিতে মাত্র ১ ঘণ্টা লাগবে৷ সরকারি জমিতে যত মসজিদ রয়েছে, সব এক মাসের মধ্যে ধ্বংস করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি ওই বিজেপি নেতার৷

দিল্লি নির্বাচনের প্রচারে প্রবেশ বললেন, '১১ ফেব্রুয়ারি যদি বিজেপি ক্ষমতায় আসে, ১ ঘণ্টার মধ্যে শাহিনবাগের আন্দোলন সাফ করে দেব৷ একটি লোককে দেখা যাবে না৷' এখানেই থামেননি প্রবেশ৷ দিল্লির বিজেপি সাংসদের কথায়, 'কয়েক লক্ষ মানুষ শাহিনবাগে জড়ো হয়েছেন৷ দিল্লিবাসীকে খুব ভেবে সিদ্ধান্ত নিতে হবে৷ ওরা কিন্তু বাড়িতে ঢুকে বাড়ির বোন, মেয়েদের ধর্ষণ করবে৷ এখনই মেরে ফেলুন৷ এটাই সময়৷ এরপর কিছু হলে, মোদিজি, অমিত শাহ কাল কিন্তু বাঁচাতে আসবেন না৷'

পয়লা ফেব্রুয়ারি বাজেট৷ তার আগে কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের সভায় 'কুকথা'! সোমবার দিল্লিতে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে উস্কানিমূলক স্লোগান দেওয়া অভিযোগ উঠল অনুরাগ ঠাকুরের বিরুদ্ধে৷ বিজেপি রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষের মতোই এ বার কর্মীদের গুলি চালানোর নির্দেশ দিলেন অনুরাগ৷

সোমবারই দিল্লির রিঠালার সভায় কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর স্লোগান তোলেন, 'দেশ কি গদ্দারোঁ কো, গোলি মারো শালোঁ কো৷' যখনই অনুরাগ স্লোগান দিচ্ছেন,'দেশ কে গদ্দারোঁ কো...৷' তখনই সভার জনতার থেকে পাল্টা চিত্‍কার আসছে, 'গোলি মারো শালোঁ কো৷' ওই জায়গাতেই পরে অনুরাগ ঠাকুর ও আরেক কেন্দ্রীয়মন্ত্রী গিরিরাজ সিং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে সভায় যোগ দেন৷

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি-র বিরুদ্ধে স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলন চলছে দিল্লির শাহিনবাগে৷ সিএএ প্রত্যাহারের দাবিতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সেই শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে সব বয়সের ও সব ধর্মের পুরুষ ও মহিলারা অংশ নিচ্ছেন প্রতিদিন৷ এ হেন পরিস্থিতিতে আপ সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল বললেন, শাহিনবাগের আন্দোলনকে বিজেপি নোংরা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করছে৷ ভোটের পর তারা রাস্তা সাফ করে দেবে৷

সোমবার ট্যুইটারে কেজরিওয়ালের আক্রমণ, 'শাহিনবাগে রাস্তা বন্ধ থাকার কারণে মানুষের অসুবিধা হচ্ছে৷ বিজেপি চায় না, ওই রাস্তা খুলে যাক৷ বিজেপি নোংরা রাজনীতি করছে৷ বিজেপি-র নেতাদের উচিত অবিলম্বে শাহিনবাগে গিয়ে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলা এবং রাস্তা খোলার ব্যবস্থা করা৷ ভোটের পরেই রাস্তা খুলে যাবে৷'

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ কেজরিওয়ালকে কটাক্ষ করে বলেন, 'কেজরিওয়াল, সিসোদিয়ারা শাহিনবাগের আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন৷ তাদের সমর্থন করছেন৷ কিন্তু যখন ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুলে যেতে পারছে না, মানুষ অফিস যেতে পারছেন না, অ্যাম্বুলেন্স ঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছতে পারছে না, তখন চুপ করে আছেন৷' কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতিরও অভিযোগ করেন তিনি৷

First published: January 28, 2020, 1:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर