Home /News /national /
Ayodhya Elections 2022: নির্বাচনে আর বড় ইস্যু নয় রামমন্দির! ‘মন্দির-মসজিদ’ থেকে কি দূরে সরছে অযোধ্যার মানুষ?

Ayodhya Elections 2022: নির্বাচনে আর বড় ইস্যু নয় রামমন্দির! ‘মন্দির-মসজিদ’ থেকে কি দূরে সরছে অযোধ্যার মানুষ?

UP Assembly Elections 2022: রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলার অন্যতম প্রাচীনতম বিবাদী মহম্মদ হাশিম আনসারির ছেলে ইকবাল আনসারি (Iqbal Ansari) বলেন, “মানুষ এখন উন্নয়ন এবং চাকরি চায়।"

  • Share this:

    #অযোধ্যা: অযোধ্যার নির্বাচনী (Ayodhya Elections 2022) ইস্যুগুলির মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এখন রাম মন্দির (Ram temple) নির্মাণ! প্রতিদ্বন্দ্বী সমস্ত দলই জয়ের জন্য জাতি-বর্ণের ভোটের সমীকরণের উপরই আস্থা রাখছে৷ বিজেপিকে মন্দির ইস্যুতে নিত্য তুলোধোনা করছে সমাজবাদী পার্টি (Samajwadi Party)৷ ১০ জন প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বিতায়, অযোধ্যা বিধানসভা নির্বাচন (Ayodhya Elections 2022) আয়োজিত হবে ২৭ ফেব্রুয়ারি, রাজ্যের পঞ্চম দফার বিধানসভা ভোটে৷ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) অযোধ্যা থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না এই বিষয়টি স্পষ্ট হওয়ার পর বর্তমান বিধায়ক বেদ প্রকাশ গুপ্তর প্রতিই আস্থা রেখেছে বিজেপি। অন্যদিকে প্রাক্তন মন্ত্রী তেজ নারায়ণ ওরফে পবন পাণ্ডেকে (Tej Narayan alias Pawan Pandey) প্রার্থী করেছে এসপি।

    বিএসপি, কংগ্রেস এবং আপও অযোধ্যায় প্রার্থী দিয়েছে। রাম মন্দির ইস্যুতে বিজেপি এখনও অবধি এই নির্বাচনে মাইলেজ পায়নি। তৃতীয় দফার ভোটের পরেই সমস্যাটি উঠতে শুরু করেছে,” বলেন হনুমানগাঢ়হি মন্দিরের মহন্ত রাজু দাস। তিনি আরও জানান, দরিদ্রদের মধ্যে রেশন বিতরণ গ্রামীণ অঞ্চলে মানুষদের উপকারে এসেছে। অন্যদিকে দলের বেশ কয়েকজন নেতার ধারণা, মোদি এবং আদিত্যনাথকে সামনে রাখলেই যথেষ্ট ভোট টানতে পারবে বিজেপি। যদি আদিত্যনাথ অযোধ্যা থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতেন তবে কি বিষয়টা অন্যরকম হতেও পারত? বিজেপির সঙ্গে কোনও বিরোধিতা নেই, কেবল প্রার্থীর প্রতি বিরোধিতা ছিল,” বলেন রাজু দাস (Mahant Raju Das)। অন্যদিকে পবন পাণ্ডে পিটিআইকে বলেন, “রাম এবং রাম মন্দির বিজেপির জমিদারি নয়। শ্রী রাম আমাদের সকলের। যখন বিজেপি ছিল না, তখনও ভগবান রামই ছিলেন।”

    আরও পড়ুন- দিল্লি থেকে রওনা হল শ্রী রামায়ণ যাত্রা স্পেশাল ট্রেন! ভাড়া ১.২৫ লক্ষ টাকা!

    আদিত্যনাথ অযোধ্যা আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা (Ayodhya Elections 2022) না করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে কি স্বস্তিতে পবন পাণ্ডে? “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে প্রার্থী করলেও (অযোধ্যা থেকে) কোনও পার্থক্য হবে না,” বলেন পবন।

    লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নেতা পবন পাণ্ডে ২০১২ সালের বিধানসভা নির্বাচনে অযোধ্যার বর্তমান সাংসদ বিজেপির লাল্লু সিংকে পরাজিত করেছিলেন। তবে ২০১৭ সালে বেদ প্রকাশ গুপ্তর কাছেই হেরেছিলেন তিনি।

    বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে উচ্চবর্ণের অসন্তোষকেই কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে এসপি। অযোধ্যা আসনে প্রায় ৩.৮১ লক্ষ ভোটারের মধ্যে ব্রাহ্মণদের সংখ্যা ৬২,০০০ এর বেশি। বৈশ্য ভোটার সংখ্যা ৫১,০০০, মুসলিম ভোটার ৫৫,০০০ এবং যাদব ভটার ৩৭,০০০৷

    রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলার অন্যতম প্রাচীনতম বিবাদী মহম্মদ হাশিম আনসারির ছেলে ইকবাল আনসারি (Iqbal Ansari) বলেন, “মানুষ এখন উন্নয়ন এবং চাকরি চায়। অযোধ্যার মানুষ এখন ‘মন্দির-মসজিদ ইস্যু’ থেকে দূরে সরে যাচ্ছে এবং উন্নয়নের কথা বলছে। সুপ্রিম কোর্টের রায় দেওয়ার পর ইতিমধ্যেই দুই বছর কেটে গিয়েছে। তবে মন্দির-মসজিদকে নির্বাচনী ইস্যু বানানোর চেষ্টা করছে কেউ কেউ। আগে এ নিয়ে হিন্দু-মুসলমানদের মধ্যে মারামারি চললেও এখন আর তেমন কিছু নেই। এই নির্বাচনের প্রধান সমস্যা হল মূল্যবৃদ্ধি, যা প্রায় প্রতিটি পরিবারকে প্রভাবিত করেছে,”।

    আরও পড়ুন- "মুখ্যমন্ত্রী হবেন একজন রামভক্তই!" বিধানসভা নির্বাচনে জয়ে আশাবাদী যোগী আদিত্যনাথ

    বিএসপি প্রার্থী রবি প্রকাশের কাছে মূল বিষয় চাকরি ও উন্নয়ন। আম আদমি পার্টির শুভম শ্রীবাস্তবও একই মত প্রকাশ করেছেন।

    অযোধ্যার মেয়র ঋষিকেশ উপাধ্যায় বলেন, “রাম মন্দির কখনই নির্বাচনী ইস্যু ছিল না আমাদের জন্য। এটা একটা বিশ্বাসের ব্যাপার ছিল। এটি বিজেপির ‘সংকল্প পত্র’ বা নির্বাচনী ইস্তাহারে উল্লেখ করার মতো একটি বিষয় ছিল এবং আমরা জনগণের কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম তা পূরণ করেছি।”

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Ayodhya Ram Mandir, UP Assembly Elections 2022, Yogi Adityanath

    পরবর্তী খবর