• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • TWO LOST GIRLS CROSSED LOC FROM POK ENTERED INTO JANDK SENT BACK TO PAKISTAN WITH GIFTS SWEETS PBD

LoC পার করে কাশ্মীরে ঢুকে পড়া দুই বোনকে মিষ্টি-উপহার দিয়ে ফেরানো হল পাকিস্তানে

ছাকান দা বাগ পয়েন্টে সামরিক বাহিনী ও সাধারণ মানুষের সামনে পাক আধিকারীকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়৷

ছাকান দা বাগ পয়েন্টে সামরিক বাহিনী ও সাধারণ মানুষের সামনে পাক আধিকারীকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়৷

  • Share this:

    #শ্রীনগর: ঠিক যেন ফিল্মের স্ক্রিপ্ট৷ সলমেনর বজরঙ্গি ভাইজানের কথা মনে করিয়ে দেয়৷ ছোট্ট মুন্নিকে তার বাড়ি পাকিস্তানে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন সলমন৷ এবার সেটাই হল বাস্তবে৷ আর ১ নয়, দুই বোনকে বাড়ি ফেরাল ভারতীয় সেনা৷ আর সলমনের ভূমিকায় রইলেন ভারতীয় সেনা কর্তারা৷ নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় ঢুকে পড়ে দুই বোন৷ পাক অধিকৃত কাশ্মীর টপকে পথ হারিয়ে, তারা ঢুকে পড়েন ভারতের মাটিতে৷ তাদেরই নিজেদের গ্রামে ফিরিয়ে দেন ভারতীয় সেনা৷

    দুই বোন৷ ১৭ বছরের লাইবা জাবার ও ১৩ বছর বয়সী সানা জাবার৷ পাক অধিকৃত কাশ্মীরের কাহুতা তেহসিলের বাসিন্দা দুই বোন পথ ভুলে ঢুকে পড়ে ভারতে৷ নিয়ন্ত্রণ রেখার এপারে এসে কিছুটা ঘাবড়ে যায় তারা৷ আব্বাসপুরের, পাক অধিকৃত কাশ্মীরের তেহসিল কহুতার দুই বোন পুঞ্চে ঢুকে পড়ে, তাদের ছাকান দা বাগ পয়েন্ট থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়, জানান এক সেনা আধিকারীক৷

    ছাকান দা বাগ পয়েন্টে সামরিক বাহিনী ও সাধারণ মানুষের সামনে পাক আধিকারীকদের হাতে তুলে দেওয়া হয় দুই বোনকে৷ ভারতীয় সেনা তাদের হাতে মিষ্টি ও উপহার তুলে দেয়৷ শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য তাদের হাতে এভাবে উপহার দেওয়া হয়, যাতে তারা এদেশ থেকে ভাল স্মৃতি নিয়ে যেতে পারে৷ জানিয়েছেন এক সেনা কর্তা৷

    পাকিস্তানে নিজেদের বাড়ি ফিরে যাওয়ার আগে লাবিয়া জানিয়েছে যে, 'আমরা পথ ভুল করে ভারতে ঢুকে পরি৷ ভারতীয় সেনারা আমাদের লক্ষ্য করে এগিয়ে আসেন৷ তারপর প্রশ্ন করতে থাকেন৷ ভেবেছিলাম ওদের হাতে মার খাব৷ কিন্তু খুবই ভাল ব্যবহার পেয়েছি সেনার থেকে৷ আমাদের নিয়ে এসে খেতে দিয়েছে৷ আমরা ভেবেছিলাম যে হয়ত আমাদের আটক করা হবে৷ আর ফিরতে পারব না৷ কিন্তু আমারা খুব তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরতে পারলাম'৷

    এভাবেই ভাল স্মৃতি নিয়ে ভারতের মাটিতে হারিয়ে যাওয়া দুই বোন ফিরে গেল পাকিস্তানে তাদের বাড়ি৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: