Home /News /national /

Tripura: বছরের শুরুতেই জমজমাট ত্রিপুরা, আগামিকাল অভিষেক, ৪ তারিখ মোদি

Tripura: বছরের শুরুতেই জমজমাট ত্রিপুরা, আগামিকাল অভিষেক, ৪ তারিখ মোদি

আগামী বছর বিধানসভা ভোটের আগে এখন থেকেই কোমর বাঁধছে তৃণমূল। 

  • Share this:

    #ত্রিপুরা: বিধানসভা ভোট ২০২৩ সালে। ঠিক এক বছর আগে থেকেই প্রচারে ঝড় তুলতে চাইছে সব পক্ষই। নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহ থেকেই জমজমাট হতে চলেছে ত্রিপুরায় রাজনৈতিক প্রচার।আগামী ২রা জানুয়ারি ত্রিপুরা যাচ্ছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। তিনি ২-৩ জানুয়ারি থাকবেন ত্রিপুরায়। এবার তার রাজনৈতিক কর্মসূচী শুধু আগরতলাতে সীমাবদ্ধ নয়।

    আরও পড়ুন: তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন হল ত্রিপুরায়

    দলীয় সূত্রে খবর, তিনি ত্রিপুরার বেশ কয়েকটি জায়গায় সফর করতে পারেন। পুর ভোটের আগে বা বিভিন্ন সময় একাধিক জায়গায় দলীয় কর্মীরা আক্রান্ত হয়েছেন বলে বারবার অভিযোগ করেছে তৃণমূল। এমনকি মহিলা প্রার্থীদেরও মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছিল জোড়া ফুল শিবির। সেই আক্রান্ত কর্মীদের সঙ্গে দেখা করে কথা বলবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। অন্যদিকে পুরভোটে মাত্র একটি ওয়ার্ড জিতলেও, শতাংশের বিচারে ভালো ফল করেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ যেহেতু ২০২৩ এর শুরুতেই রাজ্য জুড়ে বিধানসভা ভোটের দামামা বেজে যাবে তাই সংগঠন ঢেলে সাজাতে চায় তৃণমূল কংগ্রেস। এর জন্যে ঘরে ঘরে গিয়ে জনসংযোগ কর্মসূচী নিতে চলেছে জোড়া ফুল শিবির। তাই একাধিক রাজনৈতিক কর্মসূচী গ্রহণ করতে চলেছেন তারা। সেই কারণেই অভিষেক বন্দোপাধ্যায় বৈঠক করবেন দলের দায়িত্ব প্রাপ্ত আধিকারিকদের সঙ্গে।

    আরও পড়ুন: নতুন বছরের মর্মান্তিক ঘটনা! ভক্তদের তর্কাতর্কি-ধাক্কাধাক্কি-বচসায় উত্তপ্ত, ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি বৈষ্ণোদেবী ধামে

    এরই মধ্যে আগামী ৫ জানুয়ারি রাজভবন অভিযানের ডাক দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি, বারবার কর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা, প্রশাসন থেকে মেলেনি কোনও সাহায্য এই সব অভিযোগকে সামনে রেখেই তৃণমূল কংগ্রেস রাজভবন অভিযানের ডাক দিয়েছে। ত্রিপুরায় দলের দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতা রাজীব বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছেন, "বারবার প্রশাসনিক সাহায্য চাইলেও মেলে না। দলের কর্মীদের নানা ভাবে হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে। তাই আমরা পথে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ রাজভবন অভিযানে ত্রিপুরার বিভিন্ন জায়গা থেকে এসে আমাদের কর্মীরা যোগদান করবেন।"

    ঘাসফুল শিবিরের হেভিওয়েট নেতার সফরের পরেই আগরতলা আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার সঙ্গে থাকার কথা রয়েছে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক জে পি নাড্ডার। প্রধানমন্ত্রী আগরতলার মহারাজ বীর বিক্রম বিমানবন্দরের নয়া টার্মিনালের উদ্বোধন করবেন। সেই উপলক্ষ্যে দিনভর কর্মসূচী রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। অন্যদিকে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার সাংগঠনিক বৈঠক করার কথা আছে। রাজনৈতিক মহলের দাবি, নির্বাচনকে সামনে রেখে কিভাবে দল এগোবে সেই বার্তা দিয়ে যেতে পারেন নাড্ডা।পিছিয়ে নেই বামেরাও। বিরোধী দলনেতা মাণিক সরকার জানিয়েছেন, "আর কয়েকদিন আয়ু আছে এই সরকারের। আগামী বিধানসভা ভোটে ক্ষমতায় আসবে বামেরাই। দুর্নীতির বিরুদ্ধে বছরের শুরু থেকেই আমরা আন্দোলনে নামব।"

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Tripura

    পরবর্তী খবর