• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • লোকসভার ভোটযুদ্ধ নিয়ে কী ভাবছেন পশ্চিমবঙ্গের ভোটাররা? ইঙ্গিত মিলল THE NATIONAL TRUST SURVEY

লোকসভার ভোটযুদ্ধ নিয়ে কী ভাবছেন পশ্চিমবঙ্গের ভোটাররা? ইঙ্গিত মিলল THE NATIONAL TRUST SURVEY

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দেশের সমস্যা সমাধানে কোন দলের উপর মানুষের আস্থা সবচেয়ে বেশি? লোকসভার ভোটযুদ্ধ নিয়ে কী ভাবছেন পশ্চিমবঙ্গের ভোটাররা? বিহার ও উত্তরপ্রদেশের ভোটারদেরও বা মনোভাব কী? ইঙ্গিত মিলল ফার্স্টপোস্ট ও নিউজ এইটিন বাংলার দ্য ন্যাশনাল ট্রাস্ট সার্ভে দু'হাজার উনিশে।

    দুর্নীতি, কর্মসংস্থান থেকে জাতীয় সুরক্ষা। উনিশের ভোটযুদ্ধে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে কার ওপর আস্থা রাখছেন পশ্চিমবঙ্গের ভোটাররা?

    জাতীয় সুরক্ষার প্রশ্নে তৃণমূলের ওপর আস্থা ৫৪ শতাংশের। বিজেপিতে আস্থা ৪০ শতাংশ ভোটারের। কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে তৃণমূলে আস্থা রেখেছেন ৫৫ শতাংশ মানুষ। ৩৮ শতাংশ মানুষের আস্থা বিজেপির দিকে। দুর্নীতি মোকাবিলায় ৫২ শতাংশ মানুষের সমর্থন তৃণমূলের দিকে। বিজেপিকে সমর্থন ৪০ শতাংশের। মূল্যবৃদ্ধি মোকাবিলায় তৃণমূল পেয়েছে ৬৩ শতাংশ সমর্থন। বিজেপিকে সমর্থন ৩০ শতাংশ ভোটারের।

    প্রতিবেশী বিহারে মূল লড়াই বিজেপি-জেডিইউ জোট বনাম আরজেডি-কংগ্রেস জোটের। বিহারের ভোটারদের আস্থার লড়াইয়ে কে এগিয়ে আর কে পিছিয়ে?

    জাতীয় সুরক্ষায় প্রশ্নে বিজেপি জোটের পাশে ৮৫ শতাংশ ভোটার। তুলনায় আরজেডি-কংগ্রেসের ঝুলিতে মাত্র ৮ শতাংশ সমর্থন। কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে বিহারের শাসকজোট পেয়েছে ৮৩ শতাংশ সমর্থন। বিরোধী জোট পেয়েছে ১৪ শতাংশ। দুর্নীতি মোকাবিলায় বিজেপি-জেডিইউ জোটে ভরসা রেখেছেন ৮৫ শতাংশ ভোটার। মাত্র ৯ শতাংশ ভোটারের ভরসা আরজেডি-কংগ্রেস জোটে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ৮১ শতাংশের সমর্থন বিজেপি জোটের দিকে। কংগ্রেস জোটের দিকে সমর্থন ৭ শতাংশের। ৭৯ শতাংশ ভোটারের মত মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে রেখেছেন বিজেপি-জেডিইউ জোট। কংগ্রেস-আরজেডির পক্ষে সমর্থন ১৭ শতাংশ।

    কথায় আছে উত্তরপ্রদেশ যার, দিল্লি তার। কারণ লোকসভার আসন সংখ্যার নিরিখে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। ৮০ আসনের এই রাজ্যই দিল্লি দখলের ট্রাম্পকার্ড। ভোটের মুখে কী ভাবছেন সেই রাজ্যের ভোটাররা।

    জাতীয় সুরক্ষার প্রশ্নে উত্তরপ্রদেশের ৮৪ শতাংশ ভোটারের সমর্থন বিজেপির দিকে। এসপি-বিএসপি জোটের পক্ষে ১২ শতাংশ সমর্থন। কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে বিজেপি পেয়েছে ৮১ শতাংশ। এসপি-বিএসপি ১৪ শতাংশ। দুর্নীতি মোকাবিলায় বিজেপিকে সমর্থন ৮৫ শতাংশ ভোটারের। ১২ শতাংশ এসপি-বিএসপির পাশে। ৮৩ শতাংশ ভোটার মনে করছেন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সফল বিজেপি। ১৩ শতাংশের সমর্থন বুয়া-বাবুয়া জোটের দিকে। মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে বিজেপি পেয়েছে ৮০ শতাংশ ভোটারের সমর্থন। এসপি-বিএসপি পেয়েছে ১৪ শতাংশ।

    জাতীয় সুরক্ষার প্রশ্নে উত্তরপ্রদেশের ৮৪ শতাংশ ভোটারের সমর্থন বিজেপির দিকে। এসপি-বিএসপি জোটের পক্ষে ১২ শতাংশ সমর্থন। কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে বিজেপি পেয়েছে ৮১ শতাংশ। এসপি-বিএসপি ১৪ শতাংশ। দুর্নীতি মোকাবিলায় বিজেপিকে সমর্থন ৮৫ শতাংশ ভোটারের। ১২ শতাংশ এসপি-বিএসপির পাশে। ৮৩ শতাংশ ভোটার মনে করছেন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সফল বিজেপি। ১৩ শতাংশের সমর্থন বুয়া-বাবুয়া জোটের দিকে। মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে বিজেপি পেয়েছে ৮০ শতাংশ ভোটারের সমর্থন। এসপি-বিএসপি পেয়েছে ১৪ শতাংশ।

    ফার্স্টপোস্ট ও নিউজ এইটিন বাংলার যৌথ সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে পশ্চিমবঙ্গে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের ওপরই আস্থা রেখেছেন ভোটাররা। হিন্দি বলয়ের রাজ্যগুলি সহ দেশের মোট উনিশটি রাজ্যেই ভোটারদের আস্থা বিজেপির দিকে। তুলনায় কংগ্রেসের ওপর আস্থা রয়েছে শুধুমাত্র পঞ্জাব, মেঘালয় এবং মিজোরামের ভোটারদের।

    First published: